ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সৈয়দপুরে দিন দিন বাড়ছে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০২০, ৭:৩৪ পিএম

নীলফামারীর সৈয়দপুরে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আজ ১৩ জুলাই সোমবার পর্যন্ত উপজেলা করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৭০ জন। এ সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৯ জন। আর মারা গেছেন তিনজন।
সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ জুন পর্যন্ত উপজেলায় সর্বমোট ৫৩০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তন্মধ্যে ফলাফল এসেছে ৫২০ জনের। এদের মধ্যে করোনা ভাইরাস পজিটিভ ফলাফল এসেছে ৭১ জনের। গত এপ্রিল মাসে শুধুমাত্র একজনের করোনা পজিটিভ ফলাফল আসে। কিন্তু এর পর থেকে উপজেলায় করোনা সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছেই। গত মে মাসে করোনা ভাইরাস পজিটিভ ফলাফল আসে ১৭ জনের। পরের মাসে অর্থাৎ গত জুন মাসে এ সংখ্যা দাঁড়ায় ৩০-এ। এতে দেখা যায় গেল জুন মাসে গড়ে প্রতিদিনই একজন করে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হন। আর চলতি মাসের গত ১২ জুলাই পর্যন্ত করোনা পজিটিভ ফলাফল আসে ২২ জনের। তবে গত ৪ জুলাই একদিনে উপজেলায় সর্বোচ্চ ১২ জনের করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। যা নীলফামারী জেলার ৬টি উপজেলার মধ্যে একদিনে করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের সর্বোচ্চ সংখ্যাও
উপজেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের তালিকায় রয়েছেন জনপ্রতিনিধি, চিকিৎসক, ব্যাংকার, ব্যবসায়ী, শিক্ষক, আইন-শৃংখলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য,স্বাস্থ্যকর্মী,স্বেচ্ছাসেবকসহ বিভিন্ন পেশার ও শ্রেণির মানুষজন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সৈয়দপুর উপজেলায় ৭০জন করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির মধ্যে ৪৯ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন ইতোমধ্যে। বাকিরা নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতাল, সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে, রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল,সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) এবং হোম আইসোলেশনের চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
উল্লিখিত তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু মো. আলেমুল বাসার।
এদিকে, বিদ্যমান বৈশ্বিক প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা মাস্ক পরিধান করা, মাস্ক না পরে বাড়ির বাইরে বের না হওয়ার জন্য বলা হলেও অনেক মানুষজনই স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলছেন না। ফলে উপজেলায় করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যাও দিন দিন বাড়ছে বলে জানান স্বাস্থ্যসেবায় সংশ্লিষ্টরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন