ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

কঠিন হচ্ছে ম্যানইউর চ্যাম্পিয়নস লিগ পথ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জুলাই, ২০২০, ১২:৪৬ এএম

ওল্ড ট্রাফোর্ড আবারও দেখল ফার্গি টাইম। নব্বই মিনিটের পর যোগ করা সময়কে আগে ইউনাইটেড সমর্থকেরা গর্ব ভরে ডাকতেন ‘ফার্গি টাইম’ বলে। সে যোগ করা সময়ে গোল করে অসংখ্যবার দলকে উদ্ধার করেছেন ওয়েইন রুনি, ডেভিড বেকহাম, রায়ান গিগস, রবিন ফন পার্সিরা। শেষ মূহুর্তে গোল করাকে অভ্যাসে পরিণত করেছিলেন ইউনাইটেডের বর্তমান ম্যানেজার ওলে গুনার সুলশারও।
সেই ওল্ড ট্রাফোর্ডেই আবার হলো ‘ফার্গি টাইম’ নাটকের যথাযথ মঞ্চায়ন। তবে এবার নায়কের তালিকায় ইউনাইটেডের কোনো খেলোয়াড় নয়, বরং প্রতিপক্ষের এক অচেনা তরুণ। ‘ফার্গি টাইম’ এ করা আনকোরা স্ট্রাইকার মাইকেল ওবাফেমির গোলে ইউনাইটেডের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে সাউদাম্পটন। আর এই ড্রয়ে আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলার দৌড়ে চেলসি বা লেস্টার সিটির চেয়ে একটু পিছিয়েই পড়ল রেড ডেভিলরা।
এই সপ্তাহটাই যেন অঘটনের। চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল ড্র করেছে বার্নলির সঙ্গে, ওদিকে চেলসি হেরে বসেছে শেফিল্ড ইউনাইটেডের কাছে। লেস্টার সিটি বশ মেনেছে অবনমন এড়াতে লড়তে থাকা বোর্নমাউথের বিপক্ষে। পয়েন্ট টেবিলে নিজেদের ওপরের দুটি স্থানে থাকা চেলসি ও লেস্টারকে টপকানোর জন্য এটাই ছিল ইউনাইটেডের সুবর্ণ সুযোগ। কোনোভাবে ম্যাচটা জিততে পারলেই পয়েন্ট তালিকার তিন নম্বরে উঠে যেত তারা, পাঁচ নম্বর থেকে। ম্যাচের নব্বই মিনিট শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও যোগ করা পাঁচ মিনিটের খেলা যখন চলছে, তখনো মনে হচ্ছিল ইউনাইটেডের তিন নম্বরে ওঠার স্বপ্নটা বাস্তব হতে চলেছে।
তখনই মাঠে ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ওরিওল রোমেউকে উঠিয়ে বাড়তি স্ট্রাইকার মাইকেল ওবাফেমিকে নামালেন সাউদাম্পটনের কোচ রালফ হাসেনহাটল। কোচের আস্থার প্রতিদান দিতে মিনিটখানেকের বেশি নিলেন না ওবাফেমি। মিডফিল্ডার জেমস ওয়ার্ড-প্রাউসের মাপা কর্নারে পা ঠেকিয়ে গোল করে একদম শেষ মূহুর্তে দলকে সমতায় ফেরান এই ইংলিশ স্ট্রাইকার। আর হতাশায় মুষড়ে পড়ে ইউনাইটেড শিবির।
এর আগেও ম্যাচের শুরুতে এগিয়ে গিয়েছিল সাউদাম্পটনই। ১২ মিনিটে মাঝমাঠে বিপজ্জনক জায়গায় বল হারিয়ে ফেলেন ইউনাইটেডে পল পগবা। সেখান থেকে বল নিয়ে সতীর্থ স্টুয়ার্ট আর্মস্ট্রংয়ের দিকে ক্রস দেন ইংলিশ উইঙ্গার নাথান রেডমন্ড। গোল করতে একদমই সমস্যা হয়নি আর্মস্ট্রংয়ের। পরে তিন মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে ইউনাইটেডকে ম্যাচে ফেরান অ্যান্থনি মার্শিয়াল ও মার্কাস রাশফোর্ড। তখন ইউনাইটেডের খেলার গতি দেখে মনে হচ্ছিল, রক্তের গন্ধ পেয়ে গেছে তারা। কিন্তু শেষমেশ কৌশলের লড়াইয়ে বাজিমাত করেছেন সাউদাম্পটনের জার্মান কোচই।
এই ড্রয়ে ৩৫ ম্যাচ শেষে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার পঞ্চম স্থানে থাকল ইউনাইটেড। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে চারে আছে লেস্টার। আর তৃতীয় স্থানে থাকা চেলসির পয়েন্ট ৬০।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন