ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ম্যাচ পাতানোর উদ্দেশ্য ভারতে ভুয়া টুর্নামেন্ট!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জুলাই, ২০২০, ১২:৪৬ এএম

ভুয়া এক টুর্নামেন্টের ম্যাচ স¤প্রচার করানো হয়েছে ফ্যানকোডকে দিয়ে! এমন অভিযোগ করেছে সয়ং সরাসরি খেলা দেখানোর এই অ্যাপ-এর প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে। অনুমতি না নিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজনের অভিযোগ ওঠার পর জানা যায়, এটি আয়োজনের মূল উদ্দেশ্যই ছিল বাজি ধরে অবৈধ অর্থ উপার্যন করা!
গত মাসে শ্রীলঙ্কায় এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটি বেশ আলোচনার জন্ম দেয়। বলা হয়েছিল, ইউভিএ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (ইউপিসিএ) অধীনেই হবে লিগটা। শ্রীলঙ্কার বড় বড় সব তারকারা খেলবেন সেখানে, এমন খবরও ছড়ানো হলো। আয়োজকেরা এমন প্রতিশ্রুতি দেওয়াতেই ম্যাচ সম্প্রচারের চুক্তি করতে রাজি হয় ফ্যানকোড।
২৯ জুন শুরু হয় টুর্নামেন্ট। ফ্যানকোডও খেলা দেখানো শুরু করে তাদের অ্যাপ এবং ইউটিউবে। কিন্তু দিন শেষে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড ফ্যানকোডের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানায়, এমন কোনো টুর্নামেন্ট আয়োজনের অনুমতি তারা দেয়নি, ইউপিসিএ-ও জানে না এমন কোনো লিগের কথা।
ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম তখন নতুন তথ্য নিয়ে হাজির। এই লিগ আসলে শ্রীলঙ্কায় নয়, হচ্ছে ভারতের চন্ডিগড়ের কাছের এক মাঠে। আয়োজকরা ম্যাচ পাতানো আর স্পট ফিক্সিংয়ের উদ্দেশ্যেই আয়োজন করেছে টুর্নামেন্টটি। আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী সংস্থা আকসু, বিসিসিআই ও শ্রীলঙ্কা বোর্ড এ নিয়ে খোঁজ-খবর শুরু করে। তদন্ত শুরু করে মুম্বাই আর চন্ডিগড় পুলিশও।
গত ৬ জুলাই পাঞ্জাব পুলিশ এ জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে। এদের একজন রবিন্দর ডান্ডিওয়াল আন্তর্জাতিকভাবে টেনিস ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে জড়িত। চন্ডিগড়ের কাছে একটি ক্রিকেট মাঠ ভাড়া করে নামমাত্র কিছু দল মাঠে নামিয়ে ইউভিএ প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করার চেষ্টা করেন ডান্ডিবাল। বাজি ধরার ব্যবস্থা করা হয় মোবাইলের অ্যাপ-এর মাধ্যমে।
শ্রীলঙ্কা বোর্ডের সঙ্গে কথা বলার পর ফ্যানকোড টুর্নামেন্টের আয়োজকদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও পারেনি। তাদের ফোন বন্ধ। টুর্নামেন্টের ওয়েবসাইটেরও আর পাত্তা নেই। টুর্নামেন্টটি নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন