ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

স্ত্রীর পা ভেঙে দিলেন

যৌতুক দাবি

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০২০, ১২:০১ এএম

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে যৌতুকের দাবি মিটাতে না পেরে স্বামীর হাতে অমানবিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। রড দিয়ে পা ভেঙে দেয়ার পর ওই গৃহবধূকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় গত বুধবার রাতে অভিযোগ দায়েরের পর থানায় মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বামী জাহাঙ্গীরকে আটক করে পুলিশ।
জানা যায়, ৫ বছর আগে উপজেলার তারুন্দিয়া ইউনিয়নের বাখড়িপাড়া গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের (৩৫) সাথে বিয়ে হয় পাশের গৌরীপুর উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের চরাইল গ্রামের আমজাদ হোসেনের মেয়ে স্মৃতি আক্তারের (২৫)। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে স্মৃতির ওপর চলে নির্মম নির্যাতন।
এ অবস্থায় স্মৃতির বাবার কাছে কয়েক দফায় প্রায় এক লাখ বিশ হাজার টাকা এনে দেয়। এতেও স্বামী জাহাঙ্গীরের চাহিদা পূরণ হয়নি। কিছুদিন যেতে না যেতেই ফের যৌতুকের দাবিতে আবারও নির্যাতন শুরু করে এবং দুই লাখ টাকা না দিলে স্মৃতিকে তালাক দেয়ার হুমকি দেয়। ওই অবস্থায় গত শুক্রবার স্মৃতি তার বাবার পক্ষে আর টাকা দেয়া সম্ভব না বলে জানায়। স্ত্রীর এমন কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে জাহাঙ্গীর রড দিয়ে পিটিয়ে স্মৃতির ডান পা ভেঙে দেয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে বুধবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বিষয়টি নিয়ে রাতেই থানায় অভিযোগ দায়েরের পর মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ঈশ্বরগঞ্জ থানার এসআই মো. তানজিল এর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর এলাকা থেকে স্বামী জাহাঙ্গীরকে আটক করে। ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান আকন্দ জানান, অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরকে আটক করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন