ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

রাউতাহাতে ভারত-নেপাল সংঘর্ষ, সীমান্তরক্ষী আহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০২০, ৩:০৪ পিএম

ভারত-নেপাল সীমান্ত চৌকিতে এবার নেপালি ডিউটি পুলিশ ও ভারতীয় নাগরিকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটল। শুক্রবার নেপালের রাউতাহাতে পারোহা পৌরসভা-৮ এর নরকাটিয়া গ্রামের কাছে দাশগজা অঞ্চলে এই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।

জানা গেছে, কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধ করতে বন্ধ সীমান্ত পার হয়ে দুই ভারতীয় মহিলা ঘাস সংগ্রহ করতে নেপালে প্রবেশের চেষ্টা করে। তাদের বাড়ি বিহারের খারসালওয়া এলাকায়। নেপালি নিরাপত্তা কর্মীরা তাদেরকে সীমান্ত অতিক্রম করতে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে, ওই মহিলাদের এলাকার মানুষ সীমান্তের কাছে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ প্রদর্শনের সময় তুমুল গন্ডগোল বেধে যায়। তাদের মধ্যে একজন পুলিশকে আক্রমণ করে এবং সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।

সংঘর্ষের সময়, এক মহিলা নেপালের সীমান্ত রক্ষী এপিএফ সদস্যকে ঘাস কাটার জন্য ব্যবহৃত একটি কাস্তে দিয়ে আক্রমণ করে তাকে আহত করে। এর পরে উত্তেজনা থামাতে সীমান্ত রক্ষীরা ফাঁকা গুলি চালাতে বাধ্য হয়ে বলে নেপাল পুলিশ জানিয়েছে। এ বিষয়ে সশস্ত্র পুলিশ বাহিনীর সুপারিনটেনডেন্ট (এসপি) রবিনরাজ করনজিৎ জানিয়েছেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৮৫ জন নিরাপত্তা কর্মীকে ব্যাকআপের জন্য ডেকে আনা হয়েছিল। এই বিরোধে জড়িত একজনকে নেপালের সুরক্ষা বাহিনী গ্রেপ্তার করে। পরে তার বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে এই শর্তে তাকে ভারতীয় সুরক্ষা বাহিনীর হাতে সোপর্দ করা হয়।

এ বিষয়ে ভারতের পূর্ব চম্পারণের পুলিশসুপার নবীনচন্দ্র ঝা জানান, ওই যুবতীকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে এলাকায় এখনও প্রচণ্ড উত্তেজনা রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। কেন ওই মহিলাকে নেপাল পুলিশ আটক করেছিল, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ভারতের দখলকৃত তিনটি অঞ্চল নেপাল তাদের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করার পর থেকেই দু-দেশের সম্পর্কের অবনতি হয়। শুক্রবারের এই সংঘর্ষের ঘটনায় প্রমাণিত হলো, নেপালীরা এখন আর ভারতের দাদাগিরি মানতে রাজি নয়। দিন কয়েক আগেও বিহার লাগোয়া সীমান্তে ভারতীয়দের নেপালের সীমান্তরক্ষীদের সংঘর্ষ হয়। সূত্র: দ্য হিমালয়ান টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Arup gupta . ১ আগস্ট, ২০২০, ৮:০৪ এএম says : 0
India Government should take initiative in this matter immediately
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন