ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

তাপদাহে অচেনা শ্রাবণ!

বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে উসকে উঠছে গরম : মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর সক্রিয় নয়, বঙ্গোপসাগরে দুর্বল

শফিউল আলম | প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০২০, ৩:০০ পিএম | আপডেট : ৯:০৭ পিএম, ২ আগস্ট, ২০২০

প্রায় বৃষ্টি-বিহীন খরতাপের এই শ্রাবণ অচেনা শ্রাবণ! দেশের বেশিরভাগ এলাকায় ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়সের ঊর্ধ্বে তাপমাত্রা। অসহনীয় ভ্যাপসা গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা। বাতাসে জলীয়বাষ্পের অত্যধিক মাত্রা, বায়ু দূষণসহ নানা কারণে বাস্তব তাপানুভূতি আরও বেশিই। আজ রোববার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত-বিচ্ছিন্ন বৃষ্টিতে উসকে উঠেছে গরম। সোমবারও আবহাওয়ায় তেমন পরিবর্তনের আভাস নেই।
আবহাওয়া বিভাগ পূর্বাভাসে জানায়, বর্ষার মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর কম সক্রিয়। বাংলাদেশ উপকূলের কাছাকাছি উত্তর বঙ্গোপসাগরে মৌসুমী বায়ুমালা দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করছে। সাগরে লঘুচাপ-নি¤œচাপের ঘনঘটা নেই আপাতত। আগামীকাল সোমবারও সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আজ দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সৈয়দপুরে ৩৭.২ ডিগ্রি সে.।
আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে (একাংশ) ৪৮ মিলিমিটার, বগুড়ায় ৩৮, যশোরে ৩২, নোয়াখালীতে ২৯, খেপুপাড়ায় ২৪ মি.মি. ছাড়া দেশে উল্লেখযোগ্য বৃষ্টিপাত হয়নি। এ সময় ঢাকায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ মাত্র ৬ মি.মি.। রংপুর বিভাগে বৃষ্টি ঝরেনি।
ঘনঘোর মেঘে ঢাকা আকাশ-ভেঙে অঝোর ধারায় বর্ষণ। চিরাচরিত ভরা বর্ষা-বাদলের শ্রাবণ মাসের এটাই তো বৈশিষ্ট্য। শ্রাবণ অতিক্রম করছে তৃতীয় সপ্তাহ। অথচ এ কোন অচেনা শাওন! তাপদাহে পুড়ছে দেশ। চৈত্র-বৈশাখের গরমের তেজ হার মানছে। তীর্যক সূর্যের কড়া দহন, কখনও মেঘ-ভাঙা রোদের তেজ, কোথাও ক্ষণিকের হালকা ও গুঁড়িবৃষ্টি উসকে দিচ্ছে অসহনীয় গা-জ¦লা অকাল ভ্যাপসা গরম। গরমে-ঘামে নাকাল। অসময়ের তাপদাহে অসুস্থ হয়ে পড়ছে অনেকেই।
সারাদেশে গড় সর্বোচ্চ ও সর্বনি¤œ তাপমাত্রা এক থেকে স্থানভেদে ৫ ডিগ্রি পর্যন্ত বেশি অনুভূত হচ্ছে। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে রাতের সর্বনি¤œ তাপমাত্রাও। ঢাকাসহ অধিকাংশ স্থানে রাতের তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সে. এমনকি তারও ঊর্ধ্বে উঠে গেছে। এবার ভরা গ্রীষ্মের বৈশাখ-জ্যৈষ্ঠেও গরমের দাপট এমনটি ছিল না। বরং মেঘ-বৃষ্টির ধারাবাহিক শীতল আবহাওয়ায় স্বস্তিতে কেটেছে গ্রীষ্মকাল।
এ মুহূর্তে বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতার হার বেশিমাত্রায় বিরাজ করছে। আজ সকালে ঢাকায় সর্বোচ্চ ৯২ ও সন্ধ্যায় ৮৫ শতাংশ। এরফলে শরীর থেকে অতিরিক্ত ঝরছে ঘাম। দুর্বল ও কাহিল হয়ে পড়ছে মানুষ।
এদিকে আজ রোববার রাত ৮ টার দিকে ঢাকায় তাপমাত্রার পারদ ছিল ৩১ ডিগ্রি সে.। তবে দেড় কোটি মানুষের আবাস, ইট-পাথর-লোহার সারি সারি ঘিঞ্জি দালানের ঘনবসতি ‘গ্যাসীয় চেম্বার’ রাজধানী ঢাকায় বাস্তব তাপানুভূতি ছিল (রিয়্যাল ফিল) ৩৮ ডিগ্রি!
অনুরূপ একই সময়ে উত্তরের মহানগরী রাজশাহী এবং দক্ষিণ-পশ্চিমের যশোরে পারদের পরিমাপ ৩১ ডিগ্রি থাকলেও বাস্তব তাপানুভূতি ছিল ৪১ ডিগ্রি। চট্টগ্রামে ছিল তা যথাক্রমে ২৯ এবং ৩৮ ডিগ্রি।
আবহাওয়া বিভাগ বলছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পেতে পারে।
২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাস
আজ সন্ধ্যায় আবহাওয়া বিভাগ আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানায়, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। কোথাও কোথাও হতে পারে মাঝারি ধরনের বর্ষণ।
সপ্তাহের পূর্বাভাস
চলতি সপ্তাহের (৮ আগস্ট পর্যন্ত) কৃষি আবহাওয়া পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তরের কৃষি আবহাওয়া মহাকাশ শাখার উপ-পরিচালক কাওসার পারভীন জানান, এ সময় রংপুর ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ স্থানে এবং ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল ও রাজশাহী বিভাগের অনেক স্থানে অস্থায়ী ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা (৪-১০ মিলিমিটর) থেকে মাঝারি (১১-২২ মি. মি.) ধরণের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে। সেই সাথে দেশের উত্তরাঞ্চলে কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী (২৩-৪৩ মি.মি.) থেকে ভারী (৪৪-৮৮মি. মি.) বর্ষণ হতে পারে। সপ্তাহের শেষের দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে। এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন