ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী প্রশংসিত হয়েছেন বিশ্বে

কোভিড মোকাবিলা সাংবাদিকদের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, আমাদের মত একটি ঘনবসতিপূর্ণ দেশেও আক্রান্ত বিবেচনায় কোভিড মৃত্যুহার উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস করতে সক্ষম হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশে^ প্রশংসিত হচ্ছেন। ইউরোপ, আমেরিকা নিয়ে বিশ^ব্যাপী সমালোচনা হচ্ছে। এমনকি পাশর্^বর্তী দেশ ভারতও কোভিড সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে। ভারতে দিনে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুও হচ্ছে প্রচুর। কিন্তু আমাদের দেশে সনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এখন ১ দশমিক ৩১ শতাংশ। অন্যদিকে দিনে দিনে আক্রান্ত হারও কমে যাচ্ছে। এই কুরবানী ঈদে আক্রান্ত সামান্য বৃদ্ধি পেলেও তা সামলিয়ে নেয়ার সক্ষমতা এখন স্বাস্থ্যখাতের হাতে রয়েছে। সোমবার দুপুরে কোরবানির ঈদের ছুটির পর সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মন্ত্রণালয়ের ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে সংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ‘কমতে থাকায়’ কিছুটা স্বস্তিতে আছেন তিনি। আমরা একটু হলেও স্বস্তির মধ্যে আছি, গত কয়েক দিনে মৃত্যুর সংখ্যা অনেক কমে গেছে। যেটা গড়ে ৪০ ছিল, গত ২-৩ দিন যাবৎ এটা ২০ এর ঘরে চলে আসছে। এটা যদি বজায় থাকে, আমরা মনে করি একটি সফলতা। আমরা আনন্দিত যে মৃত্যু কমে আসছে। কমে আসতে আসতে যদি শূন্যেও কোটায় নেমে আসে তাহলে আমরা আল্টিমেট গোল অ্যাচিভ করতে পারব।

তবে কোরবানির ঈদে গ্রামের বাড়িতে যাওয়া সাধারণ নাগরিকদের অধিকাংশই স্বাস্থ্যবিধি মানেননি বলে আক্রান্তের হার ফের বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ঈদে অনেক লোকজন বাড়ি গেছে, বিভিন্ন স্টিমারে গেছে, বাসে গেছে। আমরা দেখেছি যে, গাদাগাদি কওে ফেরিতে পার হয়েছে। আমরা একটু আশঙ্কা করছি, কিছুটা সংক্রমণ বাড়তে পারে। দেশের চলমান বন্যা পরিস্থিতি নিয়েও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তৎপর রয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। পরিস্থিতি সামাল দিতে পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও স্যালাইনের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে বলে জানান তিনি।

করোনার ভ্যাকসিন পাওয়া প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশে^র অনেক দেশই করোনার ভ্যাকসিন আবিস্কারের পথেই রয়েছে। কোনো কোনো দেশ তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার মধ্যেই আছেন। ভ্যাকসিন আবিস্কার হলে বাংলাদেশ যেন আগে পায় সে ব্যাপারে সরকার তৎপর রয়েছে। ভালো হবে, কার্যকর হবে বা সবচেয়ে তাড়াতাড়ি পাওয়া যাবে, আমরা তা আনার চেষ্টা করব। বিশ্বেও পৌনে দুই কোটির বেশি মানুষকে আক্রান্ত এবং পৌনে সাত লাখের বেশি মানুষের প্রাণ হরণকারী কোভিড-১৯ রোগ প্রতিরোধে এখন টিকার দিকে চেয়ে আছে সবাই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ব্রিফিংকালে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতর-এর মহাপরিচালক সিদ্দিকা আক্তার, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ এইচ এম এনায়েত হোসেন-সহ অন্যান্য ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
বাঁধন ৫ আগস্ট, ২০২০, ৮:৩১ এএম says : 0
স্বাস্থ্যমন্ত্রী একদম ঠিক কথা বলেছেন
Total Reply(0)
মিনার ৫ আগস্ট, ২০২০, ৮:৩২ এএম says : 0
মন্ত্রী মহোদয় আপনার নিজের কথা একটু বলুন
Total Reply(0)
সোহানা ৫ আগস্ট, ২০২০, ৮:৩৩ এএম says : 0
সকল ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশংসিত হয়েছেন
Total Reply(0)
পূর্ণিমা ৫ আগস্ট, ২০২০, ৮:৩৩ এএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য অনেক অনেক শুভকামনা ও দোয়া রইল
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন