ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ফোনে কথা বলায় হত্যা, ঘাতক গ্রেফতার

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে আবাসিক হোটেলে রুম ভাড়া

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে রাজধানীর সায়েদাবাদের একটি আবাসিক হোটেলের রুম ভাড়া নেন ইয়াসিন মোল্লা ও হাবীবা ইয়াসমিন ওরফে লাবনী নামের তরুণ-তরুণী। এক পর্যায়ে মোবাইলে কথা বলার দ্ব›েদ্ব হাবীবাকে হত্যা করা হয়। গ্রেফতারের পর বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার কথা স্বীকারও করেছেন ইয়াসিন। নিহত হাবীবা ঢাকায় বাসাবাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করতেন। তার বাড়ি নওগাঁ সদর উপজেলায়। আর ইয়াসিনের বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলায়।

পুলিশ জানায়, গত ৩০ জুলাই দুপুরে হাবীবাকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে সায়েদাবাদের একটি আবাসিক হোটেলে ওঠেন ইয়াসিন। পরে দিন বিকেলে ইয়াসিন রুমের বাইরে থেকে দরজায় তালা দিয়ে চলে যান তিনি। রাতে হোটেলবয়রা এসে ডাকাডাকি করে কোনো সাড়াশব্দ পাননি। পরে তারা দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে ওই তরুণীকে খাটের ওপর নিথর অবস্থায় পান। খবর পেয়ে যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ এসে তরুণীর লাশ উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
পরে এ ঘটনায় যাত্রাবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ প্রেক্ষিতে গত সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াসিন মোল্লা নামের ওই আসামিকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। ডিবির ওয়ারী বিভাগের ডিসি মো. আব্দুল আহাদ বলেন, ঘটনার পর টানা চার দিন ধরে অভিযান চালিয়ে ইয়াসিনকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে হাবীবার ব্যবহৃত মুঠোফোনের একটি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়েছে।
ডেমরা জোনাল টিমের এডিসি মো. আজহারুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারের পর ইয়াসিনকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তিনি ডিবিকে বলেছেন, দেড় বছর আগে সিলেটের জাফলংয়ে হাবীবার সঙ্গে তার পরিচয়। এরপর সম্পর্ক। ঘটনার দিন তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ওই হোটেল ওঠেন। একপর্যায়ে একটি মোবাইল ফোনের কলকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এতে ইয়াসিন ক্ষিপ্ত হয়ে হাবীবার গলা টিপে ধরেন। পরে নাক-মুখে বালিশ চাপা দিয়ে হাবীবাকে হত্যা করে পালিয়ে যান।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
রোদেলা ৫ আগস্ট, ২০২০, ১:২৪ এএম says : 0
এদের মত কিছু মানুষদের কারণে ভালো লোকজনও পরিবার নিয়ে কোন হোটেলে থাকলে গেলে নানা সমস্যার সম্মুখিন হয়
Total Reply(0)
রবিনা ৫ আগস্ট, ২০২০, ২:০২ এএম says : 0
অপরাধীর মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত
Total Reply(0)
সাহিদা ৫ আগস্ট, ২০২০, ২:০৩ এএম says : 0
প্রেমের সম্পর্ক তৈরির ক্ষেত্রে মেয়েদেরকে আরো অনেক বেশি সতর্কতা হতে হবে
Total Reply(0)
শুভ ৫ আগস্ট, ২০২০, ২:০৪ এএম says : 0
যেহেতু সে সব স্বীকার করেছে তাইতো তার বিচার কার্য সম্পন্ন করে তাকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হোক
Total Reply(0)
তুলি ৫ আগস্ট, ২০২০, ২:০৮ এএম says : 0
রুমডেটের মতো অপসংস্কৃতির কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে
Total Reply(0)
আবুল কালাম আজাদ ৫ আগস্ট, ২০২০, ৪:৫১ এএম says : 0
হত্যার শাস্তি একমাত্র হত্যাই হওয়া উচিৎ শুধু পরিচয় হওয়াতে তার উপরে ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যা করা এর কোন মানে হয়না। ঘতক ইয়াসমিনেেে র মৃত্যুডণ্ড কামনা করছি।।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন