ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭, ১১ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

আরেকটি আইরিশ রোমাঞ্চ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ আগস্ট, ২০২০, ১২:০৪ এএম

এউইন মরগ্যানের সেঞ্চুরিতে ৩২৮ রানের বড় সংগ্রহ গড়েছিল ইংল্যান্ড। প্রথম দুই ম্যাচ জিতে এগিয়ে থাকা স্বাগতিকরা সম্ভাবনা বাড়িয়েছিল হোয়াইটওয়াশের। কিন্তু পল স্টার্লিং আর অ্যান্ডি বলবার্নির দুই সেঞ্চুরিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে দারুণ জয় পেয়েছে আয়ারল্যান্ড।
সাউদাম্পটনে গতপরশু রাতে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ১ বল বাকি থাকতে ইংল্যান্ডের ৩২৮ রান পেরিয়ে ৭ উইকেটে রোমাঞ্চকর ম্যাচ জেতে আইরিশরা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রান তাড়ায় এটি আয়ারল্যান্ডের নতুন রেকর্ড। এর আগে ২০১১ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের ৩২৭ রান তাড়া করে জিতে বিশ্বকাপের আসরে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড গড়েছিল আয়ারল্যান্ড।
এই ম্যাচ হারলেও প্রথম দুই ওয়ানডে জিতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে মরগ্যানের দল। তবে এক ম্যাচ জেতায় ওয়ানডে সুপার লিগে একটা অর্জন হয়েছে আইরিশদের। রান বন্যার এই ম্যাচে সেঞ্চুরি করা তিনজনই আইরিশ। তবে এক আইরিশ তো আবার এখন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক। আগের ম্যাচগুলোতে নিচের দিকে নামা ইংল্যান্ডের ‘আইরিশ’ কাপ্তান মরগ্যান এবার নেমেছিলেন চার নম্বরে। ১৪ রানে দুই উইকেট হারিয়ে তার দল তখন বিপদে। তিনি নামার খানিক পর ৪৪ রানে তৃতীয় উইকেটও হারায় ইংল্যান্ড। এরপর টম ব্যান্টনকে নিয়ে বাকি খেলা বদলে দেন মরগ্যান। ৮৪ বলে ১০৬ রানের ঝড়ে দলকে নিয়ে যান তিনশো পার করে।
কিন্তু রান তাড়ায় আরও বিপদজনক ছিলেন স্টার্লিং আর বালবার্নি। দুজনে মিলে কোন সুযোগই দেননি ইংলিশ বোলারদের। গ্যারেথ ডেনলির সঙ্গে ৫০ রানের ওপেনিং জুটির পরই স্টার্লিং সঙ্গী হিসেবে পান বালবার্নিকে। মাত্র ৮৮ বলে জুটিতে প্রথম একশো রান আনেন তারা। দ্রুত ফিফটি তুলে এগিয়ে যান তারা। এরমধ্যে ৯৬ বলে ওয়ানডেতে নবম সেঞ্চুরি স্পর্শ করেন স্টার্লিং, তিন অঙ্কে যেতে আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক বালবার্নির লাগে ১০০ বল। স্টার্লিংয়ের রান আউটে ভাঙে দুজনের ২১৪ রানের জুটি। ১২৮ বলে ৯ চার, হাফ ডজন ছক্কায় ১৪২ রান করেন তিনি। ১১২ বলে ১১৩ রান করে আদিল রশিদের বলে ফেরেন বালবার্নি। হ্যারি টেক্টর আর কেভিন ও’ব্রায়েন মিলে বাকি খেলা শেষ করেছেন অনায়াসে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইংল্যান্ড : ৪৯.৫ ওভারে ৩২৮ (রয় ১, বেয়ারস্টো ৪, ভিন্স ১৬, মর্গ্যান ১০৬, ব্যান্টন ৫৮, বিলিংস ১৯, মঈন ১, উইলি ৫১, কারান ৩৮*, রশিদ ৩, মাহমুদ ১২; ইয়াং ৩/৫৩, অ্যাডায়ার ১/৪৫, লিটল ২/৬২, ক্যাম্পার ২/৬৮, ম্যাকব্রাইন ০/৬১, ডেলানি ১/২৯)।
আয়ারল্যান্ড : ৪৯.৫ ওভারে ৩২৯/৩ (স্টার্লিং ১৪২, ডেলানি ১২, বালবার্নি ১১৩, টেক্টর ২৯*, ও’ব্রায়েন ২১*; উইলি ১/৭০, মাহমুদ ০/৫৮, কারান ০/৬৭, মইন ০/৫১, রশিদ ১/৬১, ভিন্স ০/২০)।
ফল : আয়ারল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী। ম্যান অব দ্য ম্যাচ : পল স্টার্লিং (আয়ারল্যান্ড)। সিরিজ : ২-১ ব্যবধানে ইংল্যান্ড জয়ী। মান অব দ্য সিরিজ : ডেভিড উইলি (ইংল্যান্ড)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন