ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ব্রহ্মপুত্র-যমুনা গঙ্গা-পদ্মায় পানি বৃদ্ধির পূর্বাভাস

ঢাকাসহ আশপাশে বন্যা আরো এক সপ্তাহ : ভাটিতে বানের পানি হ্রাস ব্যাহত

শফিউল আলম | প্রকাশের সময় : ৬ আগস্ট, ২০২০, ১২:০৪ এএম

ব্রহ্মপুত্র-যমুনা এবং গঙ্গা-পদ্মা নদ-নদীতে আগামী সপ্তাহে আবারও পানি বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছে পাউবো। ঢাকা ও আশপাশ এলাকায় চলমান বন্যা পরিস্থিতি স্থায়ী হতে পারে আরো অন্তত এক সপ্তাহ। তাছাড়া সুস্পষ্ট লঘুচাপ-নিম্নচাপের কারণে সমুদ্র উপকূলভাগ উত্তাল থাকায় ভাটির দিকে বানের পানি হ্রাস ব্যাহত হতে পারে। এ অবস্থায় বন্যার পানি হ্রাস পাওয়া শুরু হতে না হতেই বন্যার অবনতি ঘটতে পারে আবারও।
গতকাল পাউবোর বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র আগামী দশ দিনের অন্তবর্তী সম্ভাব্য পূর্বাভাসে আরও জানায়, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদের পানির সমতল আগামী ১০ আগস্ট পর্যন্ত কমতে পারে। এরপর ফের বৃদ্ধি শুরু হতে পারে। এরফলে ১০ আগস্ট পর্যন্ত কুড়িগ্রাম, বগুড়া, গাইবান্ধা, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, টাঙ্গাইল ও মানিকগঞ্জ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। অন্যদিকে আগামী ৭ দিন পর গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানির সমতল বাড়তে পারে। এরআগে রাজবাড়ী, মুন্সীগঞ্জ ও শরিয়তপুর জেলায় বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হতে পারে।

এদিকে, ঢাকার চারপাশের নদীসমূহের পানির সমতল অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী ৭ দিন নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর পানির সমতল বাড়তে পারে। এতে করে জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি আগামী ৭ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। ডেমরা পয়েন্টে বালু নদী, মিরপুর পয়েন্টে তুরাগ নদী এবং রেকাবী বাজার পয়েন্টে ধলেশ্বরী নদীর পানির সমতল বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে। এরফলে ঢাকা জেলায় বন্যা পরিস্থিতি আগামী ৭ দিন স্থায়ী হতে পারে।

সুস্পষ্ট লঘুচাপে সাগর উত্তাল : উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর সংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপটি গতকাল ঘনীভূত হয়ে বর্তমানে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও এর সংলগ্ন উত্তর উড়িষ্যা-পশ্চিমবঙ্গ-বাংলাদেশ উপকূলীয় এলাকায় অবস্থান করছে। আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ জানান, সুস্পষ্ট লঘুচাপের প্রভাবে এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর সংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

সুস্পষ্ট লঘুচাপটির প্রভাবে বাংলাদেশের সংলগ্ন সমুদ্র উপক‚লভাগ উত্তাল রয়েছে। এটি ঘনীভ‚ত হয়ে মৌসুমী নিম্নচাপে পরিণত হলে এর প্রভাবে সমুদ্র উপকূলভাগ আরো উত্তাল এবং ফুলে-ফেঁপে উঠতে পারে। এতে করে দেশের উত্তরাঞ্চল, মধ্যাঞ্চলের নদ-নদীসমূহ হয়ে ভাটির দিকে বন্যার পানি হ্রাস পাওয়া ব্যাহত হতে পারে। এমনিতেই দেশের নদ-নদীর তলদেশ পলি-বালি-মাটিতে ভরাট এবং নদীর তীরসমূহ বেদখল হয়ে আছে। সেই সঙ্গে বৈরী আবহাওয়ায় সমুদ্র উপক‚লভাগ উত্তাল ও স্ফীত থাকলে বন্যার পানি হ্রাস হবে বিঘিœত। এরফলে বন্যা আরও দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন