ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নেত্রকোনার মদনে চায়ের স্টলে বসাকে কেন্দ্র করে দু গ্রুপের সংঘর্ষে ২৫ জন আহত ঃ আটক-৪

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ আগস্ট, ২০২০, ৯:৪২ পিএম

চায়ের স্টলে বসাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ ও নারীসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, শুক্রবার দুপুরে নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের পাছ আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নায়েকপুর ইউনিয়নের জনতা বাজারে গত সোমবার (৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় চান মিয়ার চায়ের দোকানে বেঞ্চে বসা নিয়ে বাজার কমিটির সভাপতি আজিজুলের সাথে চাঁন মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে শুক্রবার জুম্মার নামাজের পূর্বে ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক রিপন গ্রæপ ও মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন গ্রæপের লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় ঘন্টাব্যাপী চলে দু গ্রæপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্র্ষে পুলিশ ও নারীসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়। এ সময় পুলিশ পাছ আলমশ্রী গ্রামের মহসিন ইয়ার ডালিম, শাহ্ আলম, মোবারক তালুকদার ও মোঃ হেলিমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত আবুল কাশেম, আবু বক্কর, আহাদ, মিলন, জজ মিয়া ও ফয়সালকে আশংকাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহতদের মধ্যে এস আই বিপ্লব, শাহ আলম, সিরাজুল, মোস্তাকিম, রতন, তারা মিয়া, জীবন মিয়া, লিটন, বাদল, মাইশারা আক্তার ও ফাতেমা আক্তারকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যান্য আহতরা স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খালিয়াজুরী সার্কেল) জামাল উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বেঞ্চে বসা নিয়েই মূলত দু’পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য এস আই বিপ্লবসহ ২০/২৫জন আহত হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন