ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

ম্যানচেস্টারে পাকিস্তানের দাপট

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২০, ১২:০২ এএম

পাকিস্তানের ফাস্ট বোলিং শক্তি নিয়ে প্রশ্ন কখনোই ছিল না। প্রশ্ন ছিল কেবল তাদের সেই শক্তির ব্যবহার নিয়ে। কিন্তু ওল্ড ট্রাফোর্ডে শাহীন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ, মোহাম্মদ আব্বাসদের বোলিং দেখে সেই সন্দেহ দূর হয়ে যেতে বাধ্য ক্রিকেটপ্রেমীদের। নতুন বলের কী অসাধারণ ব্যবহারটাই না দেখা গেল ম্যানচেস্টারের ঐতিহাসিক ক্রিকেট মাঠটিতে।

শাহীন আফ্রিদি, নাসিম, আব্বাসরা সত্যিকার অর্থেই নিজেদের ফজল মাহমুদ, ইমরান খান, সরফরাজ নেওয়াজ, ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিসদের যোগ্য উত্তরসূরি প্রমাণ করলেন। ইংল্যান্ডের প্রথম তিন উইকেট তারা তুলে নিলেন ১২ রানের ভেতর। ইনিংসের প্রথম ২০ ওভার দারুণভাবে উপভোগ্য হলো এই তিন ফাস্ট বোলারের দুর্দান্ত গতি, সুইং আর নতুন বলের ঝলকে। আফ্রিদি নিয়েছেন একটি, আব্বাস পেয়েছেন দুটি উইকেট। ৩০ বছর বয়সী আব্বাস নিজেকে চিনিয়েছেন আলাদাভাবে। তিন ফাস্ট বোলারের বোলিংয়ের তিন ধরন মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে ওল্ড ট্রাফোর্ডে।

তবে গতকাল ঝলক দেখিয়েছেন লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ। তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। তাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ২১৯ রানেই গুটিয়ে গেছে ইংল্যান্ড। পাক বোলারদের বিপরীতে প্রতিরোধ গড়তে পেরেছেন কেবল ওলি পোপ। ফিফটি তুলে এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান থেমেছেন ৬২ রানে। এছাড়া ৩৮ রান করেছেন জস বাটলার। স্বস্তিতে নেই পাকিস্তানও। প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরিয়ান শান মাসুদ এদিন ফিরেছেন শূন্য রানে। গতকাল চা বিরতি পর্যন্ত ঐ এক উইকেট হারানো সফরকারীদের সংগ্রহ ২০।

ক্রিকেটপ্রেমীদের নজর কেড়েছে পাকিস্তানের তিন ফাস্ট বোলার যেভাবে নতুন বল ব্যবহার করেছেন, সেটি। শান মাসুদের সেঞ্চুরি আর বাবর আজমের পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংসের কল্যাণে এর আগে নিজেদের স্কোরবোর্ডে তোলা ৩২৬ রানটাকে এখন অনেকটাই স্বস্তির মনে হচ্ছে পাকিস্তানের কাছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন