ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

একজনকে ডাউন, একজনকে ধরেছি স্যার

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২০, ১১:৪৮ এএম | আপডেট : ১২:০০ পিএম, ৮ আগস্ট, ২০২০

‘একজনকে ডাউন করেছি, একজনকে ধরেছি স্যার।’ কক্সবাজারে টেকনাফে মেজর (অব,) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানকে গুলি করে হত্যার পর এভাবে পুলিশ সুপারকে ঘটনা জানান পরিদর্শক লিয়াকত আলী। এই ঘটনায় একটি মোবাইল কথোপকথন ফাঁস হয়েছে। এতে স্পষ্ট, ওসি প্রদীপ কুমার দাশের নির্দেশেই সিনহা মো. রাশেদ খানকে গুলি করেছিলেন বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলী। 

রাত ৯টা ২৫ থেকে ৩০ মিনিটের দিকে এসআই লিয়াকত মেজর সিনহাকে গুলি করার পরই কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনকে ফোন করেন লিয়াকত। ফোনে লিয়াকত এসপি মাসুদকে বলেন, ‘একজনকে ডাউন করেছি, একজনকে ধরেছি স্যার।’ ওসি প্রদীপ এসপি মাসুদকে ফোন করে জানান— সিনহা মো. রাশেদ খানকে তার নির্দেশেই গুলি করেন লিয়াকত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে এসপি এবিএম মাসুদ হোসেনের সঙ্গে ওসি প্রদীপ ও এসআই লিয়াকতের মোবাইলে কথোপকথন ।
প্রদীপ: আদাব, স্যার
মাসুদ: কী, আপনি এমন কি হইছে, বলেন…
প্রদীপ: স্যার, লিয়াকতরে গুলি করছে নাকি স্যার, আমি যাচ্ছি ওখানে…
মাসুদ: কে?
প্রদীপ: ঐ যে স্যার লিয়াকত স্যার… ইয়াতে, চেকপোস্টে…
মাসুদ: হ্যাঁ
প্রদীপ: একটা গাড়িকে সিগন্যাল দিছে, সিগন্যাল দেওয়ার পরে গাড়ি থেকে তাকে পিস্তল দিয়ে গুলি করছে। ওই সময় আমি তাকে বললাম, ঠিক আছে তুমিও তাড়াতাড়ি ওকে গুলি করো। সেও নাকি তাকে গুলি করছে স্যার, আমি যাচ্ছি স্যার ওখানে স্যার…
মাসুদ: যান, যান

মেজর সিনহাকে গুলি করার পর এসআই লিয়াকত ফোন করেন এসপি মাসুদকে।

লিয়াকত: আসসলামু আলাইকুম, স্যার
মাসুদ: বলো
লিয়াকত: এখানে একটা প্রাইভেট কার আছে স্যার, ঢাকা মেট্রো লেখা। আর্মির পোশাক-টোশাক পরা। সে ওই বোরখা খুলে ফেলছে। পরে যখন তাকে চার্জ করছি, সে মেজর পরিচয় দিয়ে গাড়িতে চলে যেতে চাইছিলো। পরে অস্ত্র তাক করছিলো, আমি গুলি করছি স্যার। একজন ডাউন করছি, আরেকজন ধরে ফেলছি স্যার। স্যার আমি কি করবো স্যার? আমাকে পিস্তল তাক করছে, পিস্তল পাইছি তো স্যার।

মাসুদ: আচ্ছা, ঠিক আছে, তুমি… তোমারে গুলি করছে, তোমার গায়ে লাগে নাই, তুমি যেইটা করছো, সেটা তার গায়ে লাগছে…
লিয়াকত: লাগছে স্যার, লাগছে স্যার।
তবে এ বিষয়ে কোন কিছু বলতে রাজি হননি পুলিশ সুপার।

কক্সবাজারের টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর পুলিশ তল্লাশিচৌকিতে গত ৩১ জুলাই রাতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান (৩৬)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
এড, কামাল হোসেন ৮ আগস্ট, ২০২০, ২:১০ পিএম says : 0
এসপিকে মামলায় সম্প্রিক্ত করে দ্রুত গ্রেফতার করা হোক।
Total Reply(0)
AK aman ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪০ পিএম says : 0
In Europe and USA any police or public call to command and control center, in Bangladesh its local OC and SP this two people decide everything !! its very old style. Bangladesh police need modernization. NO need so called BCS post SP recruitment. these BCS are big GHUSH khores with cars and sevent SI post should be the main as police officer graduate is enough.from there they will proceed to top lavel management through exam. There may be some constable to make numbers ... but most numbers should be officers ...like europe
Total Reply(0)
জাহিদ ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪২ পিএম says : 0
এসআই লিয়াকত, ওসি ও এসপি সকলেই অপরাধী, এতে কোন সন্দেহ নেই
Total Reply(1)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৮ আগস্ট, ২০২০, ৫:০৬ পিএম says : 0
সবাই সত্যি কি জানে। দুনিয়ার আইনে কেও মুক্ত থাকলে ও আল্লাহর আইনে থেকে মুক্তি পাবেনা।।।
তানিয়া ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৪ পিএম says : 0
এদের নিয়ে কিছু বলার ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না
Total Reply(0)
পায়েল ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৪ পিএম says : 0
এরা আদৌ মানুষের কাতারে পরে কিনা সেটা নিয়ে আমার সন্দেহ আছে
Total Reply(0)
মিনহাজ ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৫ পিএম says : 0
মানুষের জীবন তাদের কাছে এতটাই মূল্যহীন ?
Total Reply(0)
রিপন ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৭ পিএম says : 0
প্রথমে তদন্ত, তারপর বিচার প্রক্রিয়া, ........ এত কিছু না করে এদেরকে ফাসির আদেশ দিয়ে, সেটা কার্যকর করা হোক
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন