ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

প্রবাস জীবন

এমপি পাপুলের ৬৭ কোটি টাকার দরপত্র বাতিল করলো কুয়েত সরকার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২০, ১১:৫০ এএম

মানবপাচার ও অবৈধ মুদ্রা পাচারের অভিযোগে আটক বাংলাদেশের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম পাপুলের প্রতিষ্ঠানের নতুন একটি দরপত্র কুয়েত সরকার বাতিল করে দিয়েছে। -আরব টাইমস, আল কাবাস, কুয়েত টাইমস

জানা গেছে, দ্বিতীয় সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে মারাফিয়া কুয়েতিয়া গ্রুপ নামের প্রতিষ্ঠানটি ২৫ লাখ দিনার বা প্রায় ৬৭ কোটি টাকার কাজটি পেয়েছিল। কুয়েতের সবচেয়ে ছোট প্রদেশ হাউলরির বিভিন্ন ভবন ও মসজিদের তিন বছরের পরিচ্ছন্নতা সেবার কাজের জন্য প্রতিষ্ঠানটি কার্যাদেশ পাওয়ার অপেক্ষায় ছিল। ওই কাজগুলো কুয়েতের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেওয়ার কথা ছিল। নতুন ও পুরনো মিলিয়ে এ পর্যন্ত শহিদ ইসলামের প্রতিষ্ঠান মারাফিয়া কুয়েতিয়ার ৩টি সরকারি কাজের দরপত্র বাতিল হলো। এর আগে জুনে কুয়েতের বিমানবন্দর এবং মসজিদ কমপ্লেক্স রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচ্ছন্নতার কাজ বাতিল হয়ে যায়। ওই কাজ দুটি কয়েক মাস আগে নবায়ন করা হয়েছিল। কুয়েতের জনশক্তি কর্তৃপক্ষ পাপুলের মালিকানাধীন কুয়েতিয়া মারাফিয়াকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে। ফলে প্রতিষ্ঠানটিকে সরকারি কোনো কাজ দিতে নিষেধ করেছে জনশক্তি কর্তৃপক্ষ।
শহিদ ইসলামের আটকাদেশের মেয়াদ আগামীকাল রোববার শেষ হচ্ছে। আজ সুপ্রিম কোর্টে আটকাদেশ পুনর্বিবেচনা–বিষয়ক বিচারের চেম্বারে শহিদ ইসলামের পাশাপাশি কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রশিক্ষণবিষয়ক সহকারী আন্ডার সেক্রেটারি মেজর জেনারেল শেখ মাজন আল-জারাহ এবং অন্য দুই কুয়েতি নাগরিক হাসান আবদুল্লাহ আল খাদের এবং নওয়াফ আলী আল শালাহিকেও হাজির করার কথা রয়েছে। শহিদ ইসলামের ভিসা ব্যবসায় অন্যতম সহযোগী মো. আমান শিকদার নামের এক বাংলাদেশিকে কুয়েতের সিআইডি বুধবার আটক করেছে। মানব ও মুদ্রা পাচারের অভিযোগে কুয়েতের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তারা জুনের ৬ তারিখ শহিদ ইসলামকে তার বাসা থেকে আটক করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন