ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করায় আবারো সংবাদ সম্মেলন ছাড়লেন ক্ষুব্ধ ট্রাম্প

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২০, ৪:৫২ পিএম

প্রবীণ চয়েস কর্মসূচি নিয়ে মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে এক সাংবাদিক চ্যালেঞ্জ জানানোর পর হঠাৎ করেই সংবাদ সম্মেলন থেকে উঠে গেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গতকাল শনিবার নিউ জার্সির বেডমিনস্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনা ঘটে।
সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প দাবি করেন, তিনিই একমাত্র ব্যক্তি যিনি প্রবীণ চয়েস কর্মসূচি পাস করেছেন। তিনি বলেন, তারা দশকের পর দশক এটি পাস করার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু কোনও প্রেসিডেন্টই এখন পর্যন্ত এটি পাস করাতে সক্ষম হননি। আমরা এটি করতে পেরেছি।
প্রবীণদের স্বাস্থ্য সেবা সংক্রান্ত বিল পাস নিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এখন পর্যন্ত ১৫০ বারের বেশি মিথ্যাচার করেছেন বলে দাবি করেন সিবিএস নিউজের হোয়াইট হাউস প্রতিনিধি পওলা রেইড। মূলত সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ২০১৪ সালে ভেটেরানস চয়েস প্রোগ্রাম (ভিসিপি) বিলে স্বাক্ষর করলে সেটি আইনে পরিণত হয়।
এই আইনে বলা হয়, আমেরিকার বৃহত্তম সমন্বিত প্রবীণ স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থার বাইরে থাকা যোগ্য প্রবীণরা সরকারি চিকিৎসাসেবা পাবেন। সাবেক দুই সিনেটর ভার্মন্টের বার্নি স্যান্ডার্স এবং অ্যারিজোনার প্রয়াত জন ম্যাককেইনের যৌথ উদ্যোগে তৎকালীন সরকার এই সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু ট্রাম্প নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে আসছিলেন।
২০১৮ সালে ভিএ মিশন অ্যাক্ট নামে একটি আইনে স্বাক্ষর করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বারাক ওবামার আমলের প্রবীণ স্বাস্থ্য সেবা আইনের সংশোধন এবং সম্প্রসারণ করে নতুন আইন করে ট্রাম্প প্রশাসন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বারবার দাবি করে আসছেন, অন্যরা ৫০ বছর ধরে প্রবীণ চয়েস পাস করাতে ব্যর্থ হলেও তিনিই একমাত্র প্রেসিডেন্ট যিনি সফল হয়েছেন।
শনিবার সংবাদ সম্মেলনে সিবিএস নিউজের হোয়াইট হাউস প্রতিনিধি পওলা রেইড ট্রাম্পের কাছে জানতে চান, কেন আপনি বারবার বলছেন যে, প্রবীণ চয়েস আপনি পাস করিয়েছেন?
ট্রাম্প সিবিএসের এই প্রতিনিধির প্রশ্নের জবাব না দিয়ে অন্য সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাব দেয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় রেইড বলেন, আপনি বলছেন যে ভেটেরানস চয়েস প্রোগ্রাম (ভিসিপি) পাস করিয়েছেন। কিন্তু এটা ২০১৪ সালে পাস হয়েছে...এটি আপনার মিথ্যা বিবৃতি।
ওই সাংবাদিকের এমন মন্তব্যের পর সংবাদ সম্মেলনে মাঝপথে থামিয়ে দেন ট্রাম্প। শুধু তাই নয়, আর কোনও প্রশ্নের জবাব না দিয়ে আকস্মিকভাবে সংবাদ সম্মেলনস্থল থেকে বেরিয়ে যান তিনি। এ সময় সবাইকে ধন্যবাদ জানান মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট।
উল্লেখ্য, এর আগে করোনাভাইরাস নিয়ে প্রশ্নের জেরে এক সাংবাদিকের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ে জড়িয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে আরও এক সাংবাদিকের সঙ্গে বাদানুবাদের পর আকস্মিকভাবে ওই সংবাদ সম্মেলনস্থল ছেড়ে উঠে যান তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ট্রাম্পের এমন কাণ্ডের ভিডিও। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, সিএনএন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন