ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

দক্ষিণাঞ্চলে পরীক্ষার সাথে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১১ আগস্ট, ২০২০, ২:০৩ পিএম

দক্ষিণাঞ্চলে করোনা ভাইরাস পরিক্ষার সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সনাক্তের হারও বাড়ছে। মঙ্গলবার দুপুরের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলায় এ যাবতকালের সর্বোচ্চ ৩৫১টি নমুনা পরিক্ষার বিপরিতে মোট সনাক্তের সংখ্যাটা ছিল ৯১। এসময়ে কোন মৃত্যু ছিলনা। আগেরদিন ৮২ জন আক্রান্তের সাথে মৃত্যু হয়েছিল দুজনের। তবে গত ২৪ ঘন্টায় শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসালেশন ওয়ার্ডে করেনা উপসর্গে দুজনের মৃত্যু হলেও তাদের নমুনা পরিক্ষার রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। এপর্যন্ত ওয়ার্ডটিতে ভর্তিকৃত ৮১৭ জনের মধ্যে ১১৯ জনের মৃত্যু হল।
তবে দক্ষিণাঞ্চলে এ পর্যন্ত ১২৬ জনের মৃত্যু নিয়ে দুঃশ্চিন্তা রয়েছে চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। কারন এ অঞ্চলে মোট আক্রান্ত ৬ হাজার ৪৪৮-এর মধ্যে মৃত্যুর এ সংখ্যাটা ১২৬। যা জাতীয় হারের চেয়ে বেশী। বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা ও ঝালকাঠীতে আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যু হার ২%-এর ওপরে। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় ১০৯ জন সহ দক্ষিণাঞ্চলে মোট ৪ হাজার ৪৩৯ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মঙ্গলবার দুপুরের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় পটুয়াখালী ও পিরোজপুরে আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা বাড়লেও বরিশাল, ভোলা ও বরগুনা’তে সংখ্যাটা হ্রাস পেয়েছে। এ সময়ে ঝালকাঠীতে কোন আক্রান্ত ও মৃত্যু ছিলনা।
পটুয়াখালীতেও নতুন আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ১০জন থেকে ১২ জনে উন্নীত হয়েছে। তবে আগের দিন একজনের মৃত্যু হলেও গতকাল তা ছিলনা। জেলাটিতে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,১১২ জনের মধ্যে রেকর্ড সংখ্যক, ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর সুস্থ হয়েছেন ৭৮৯জন। পিরোজপুরেও আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ২ জন থেকে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় ১৮ জনে উন্নীত হবার মধ্যে দিয়ে মোট সংখ্যা দাড়িয়েছে ৭৯৯। মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪৮৯।
বরিশালে গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ৪১ থেকে ৩৯ জনে হ্রাস পাওয়ায় মোট সংখ্যাটা দাড়িয়েছে ২,৬৯৩ জনে। জেলায় এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪৭ জনের। মোট সুস্থ হয়েছেন ১,৮৬৪ জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যেও চিকিৎসক, চিকিৎসা কর্মী, পুলিশসহ বেশকিছু কর্মজীবী রয়েছেন। বরিশাল মহানগরীতে আক্রান্তের সংখ্যাধিক্য থাকলেও গৌরনদী, আগৈলঝাড়া, উজিরপুর, বানরীপাড়া ও বাকেরগঞ্জ উপজেলাতেও নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।
ভোলায় আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ৯ থেকে ৩ জনে হ্রাস পাবার কথা বলা হয়েছে। এপর্যন্ত জেলাটিতে মোট আক্রান্ত ৫৮২, মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪৮৫ জন। বরগুনাতেও গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ১৪ থেকে ৫ জনে হ্রাস পাবার ফলে মোট সংখ্যাটা দাড়িয়েছে ৭২৩ জনে। এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ৫০২জন। ঝালকাঠীতে মঙ্গলবার দুপুরের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় নুতন কোন আক্রান্ত ছিলনা। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ৫২৯ থাকলেও এ পর্যন্ত জেলাটিতে মারা গেছেন ১২ জন। যা জাতীয় হারের চেয়ে বেশী। সুস্থ হয়েছেন ৩২০জন।
গত ২৪ ঘন্টায় শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১৩ জনকে ভর্তি করা হলেও ৪ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। করোনা ওয়ার্ডে নতুন ৫ জন ভর্তি হয়েছেন। সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন একজন। হাসপাতালের এ দুটি ওয়ার্ডে বর্তমানে চিকিৎসাধীন ৮৭ জনের মধ্যে ৪১ জন করোনা ওয়ার্ডে। ওয়ার্র্ড দুটিতে এপর্যন্ত ভর্তিকৃত ১,৩৪৬ জনের মধ্যে ১,০৭১ জন স্স্থু হয়ে বাড়ি ফিরেছেন বলে জানা গেছে। হাসপাতালটিতে ভর্তিকৃতদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ১২জনের নমুনা পরিক্ষায় দুজনের শরিরে করেনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন