ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অপেক্ষা ইলেকট্রনিক্স মাস্কের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২০, ১২:০২ এএম

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ফার্মেসী থেকে সাধারণ দোকানপাট ও ফুটপাথে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের মাস্ক। তৈরি হচ্ছে ফ্যাশানেবল, হাইটেকও অন্যান্য ডিজাইনের মাস্ক।
এবার করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে নিজেদের উদ্ভাবনী শক্তির প্রকাশ ঘটাতে চলেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্ট্রুমেন্টেশন বিভাগ। এ বিভাগের শিক্ষার্থীরা উচ্চপ্রযুক্তি সম্পন্ন একটি বৈদ্যুতিন মাস্ক তৈরির উদ্যোগ নিচ্ছে। নকশা চ‚ড়ান্ত হয়ে গেছে। এখন অপেক্ষা আইসিএমআর-এর অনুমোদনের। আর অনুমোদন পেলেই শুরু হবে উৎপাদন।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানিয়েছে, মৌলিক আবিষ্কার, উদ্ভাবনীতে সব সময় এগিয়ে রয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। মুক্তশিক্ষার পরিবেশ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী সুসম্পর্ক। শুধুমাত্র পাঠ্য বইয়ের মধ্যে শিক্ষার্থীদের আটকে না রেখে নিজেদের মতো ভাবনার অবকাশ দেওয়া। উৎসাহ প্রদান এমন বেশ কিছু ফ্যাক্টরই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মেধাবিকাশের পক্ষে সহায়ক।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা গবেষণামূলক কাজে অনেকের চেয়ে এক ধাপ এগিয়ে আছে। সম্প্রতি তারও প্রমাণ মিলল। করোনা রুখতে কোন ধরনের মাস্ক ব্যবহার করা উচিত- তা নিয়ে এখনও সংশয় আছে। এন-৯৫ মাস্ক ব্যবহারে প্রথমদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জোর দিলেও, পরে জানানো হয়, ওই বিশেষ মাস্ক সবার ব্যবহারের জন্য ঠিক নয়। ত্রিস্তরীয় সার্জিক্যাল মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। কেউ বা সুতির মাস্কের পক্ষপাতী।
এসবের মাঝে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্ট্রুমেন্টেশন বিভাগের শিক্ষার্থীরা যে মাস্ক তৈরি করছেন, তা এসবের উর্ধেব। উচ্চপ্রযুক্তির বৈদ্যুতিন মাস্ক। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, এই মাস্কের তড়িৎ-চৌম্বকীয় প্রভাব ভাইরাস মেরে ফেলতে সক্ষম হবে। ফলে এই মাস্ক পরলেই মারণ জীবাণুর বিরুদ্ধে যুদ্ধে সফল হতে পারবেন যে কেউ। আর এমনই দাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ও শিক্ষার্থীদের।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ‘ইলেকট্রনিক মাস্কের নকশা চ‚ড়ান্ত করে ফেলেছেন ইনস্ট্রুমেন্টেশন বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা। অনুমোদনের জন্য আমরা আইসিএমআর’এর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। অনুমোদন পাওয়া গেলেই উৎপাদন শুরু হবে।’ সূত্র : নর্থইস্ট নাও।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন