ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সম্পর্ক উন্নয়নে সউদী যাচ্ছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২০, ১১:১৯ এএম

দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নের জন্য চলতি সপ্তাহের শেষে সউদী আরব সফরে যাচ্ছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। সেখানে তিনি অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে ভারতের উপর কূটনৈতিক চাপ বজায় রাখতে ও আর্থিক সহযোগিতা পেতে আলোচনা করবেন।

সউদী আরবের পাকিস্তানের সাথে সম্পর্ক সবসময় থাকলেও সম্প্রতি ওআইসিতে তাদের বিরোধিতা করে মন্তব্য করেছিলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। কাশ্মীর ইস্যুতে সউদীর নিষ্ক্রিয়তার প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। এই কারণে দুই দেশের সম্পর্ক ভীষণভাবে প্রভাবিত হয়েছে। এই প্রসঙ্গে বিরোধিতা করে ইতিমধ্যেই প্রতিক্রিয়া দিয়েছে সউদী আরব। ঠিক তারপরেই দ্বিতীয়বারের জন্য সংবাদ সম্মেলন বাতিল করা হয়।

২০১৮ সালে পাকিস্তানকে ঋণ হিসেবে ৩ বিলিয়ন ডলার এবং তেল সরবরাহের জন্য ৩.২ বিলিয়ন দেয় সউদী। অর্থসংকটে সাহায্য করতে এমন কাজ করেছিল সউদী। তবে কিছুদিন আগে কাশ্মীর ইস্যুতে সউদী আরবের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে প্রশ্ন তোলে পাকিস্তান। ভারতের বিরুদ্ধে এক জোট হতে সউদী আরব নেতৃত্বাধীন অর্গানাইজেশন অফ ইসলামিক কোঅপারেশন বা ওআইসি-কে আবেদন জানায় পাকিস্তান। তবে ওআইসি এই প্রস্তাবে রাজি হয়নি।

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী সউদী আরবকে সতর্ক করে বলেন, যদি সউদী এই প্রস্তাবে রাজি না হয়, তবে ওআইসির আলাদা বৈঠক ডাকবে পাকিস্তান ও পাক বন্ধু রাষ্ট্রগুলিকে নিয়ে দল গঠন করা হবে। এই সতর্কতায় বেশ ক্ষুব্ধ সউদী আরব কুয়ালালামপুর সামিট থেকে বাদ দেয় পাকিস্তানকে। তবে, মালয়েশিয়া, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পষিদের স্থায়ী সদস্য চীন ও ন্যাটো জোটভূক্ত দেশ তুরস্ক কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে জোরালো সমর্থন দিয়েছে। সূত্র: পাকিস্তান ট্রিবিউন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
mizan khan ১৪ আগস্ট, ২০২০, ৩:১৬ পিএম says : 0
দেশের নিরাহ মানুষ পুলিশ বাহিনি কেনো মারে তার সাথে সরকার জরিতো আমাকে বুজিয়ে জানান।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন