ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

দক্ষিণাঞ্চলে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে আরো একজনের মৃত্যু

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২০, ২:২৯ পিএম

দক্ষিণাঞ্চলে করোনা সংক্রমণে আরো একজনের মৃত্যুর সাথে আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের তুলনায় ১১ জন বেড়ে ৭২-এ উন্নীত হয়েছে। ফলে এ অঞ্চলে মোট মৃত্যুর সংখ্যাটা ১৩১ এবং আক্রান্তের সংখ্যা ৬ হাজার ৬৫৩ জনে উন্নীত হল। শুক্রবার দুপুরের পূর্ববর্তী ২৪ ঘন্টায় শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বরিশাল মহানগরীর ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের এক ব্যক্তির মৃত্যু ঘটেছে। ফলে জেলাটিতে মৃত্যুর সংখ্যা অর্ধশতে পৌঁছল। যার সিংহভাগই বরিশাল মহানগরীতে। আক্রান্তেরও অন্তত ৭০ভাগ এ নগরীতে। এসময়ে বরিশাল,পটুয়াখালী ও পিরোজপুরে আক্রান্তের সংখ্যাও আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবনুযায়ী ২৪ ঘন্টায় নতুন ৬৪ জন সহ সর্বমোট ৪,৬৩৪ জনের সুস্থ হয়ে ওঠার কথা বলা হয়েছে। আগের দিন সুস্থ হবার সংখ্যাটা ছিল ৯৯।

বিগত ২৪ ঘন্টায় শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজের পিসিআর লাবে ২৮২ জনের নমুনা পরিক্ষায় ৬৬ জনের এবং ভোালা’র ল্যাবে ৩৯ জনের নমুনা পরিক্ষায় ৬ জনের দেহে করেনা ভাাইরাস সনাক্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। বরিশাল,পটুযঅখালী,পিরোজপুর,বরগুনা ও ঝালকাঠীতেএখনো সনাক্তের সংখ্যা ২০%-এর ওপরে।
এসময়ে বরিশালে আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ২১ থেকে ২৯-এ উন্নীত হয়েছে। মুত্যুও হয়েছে একজনের। এনিয়ে জেলাটিতে সরকারী হিসেবে ৫০ জনের মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা ২,৭৭৩ জনে উন্নীত হল। এখনো বরিশাল সহ সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলেই মৃত্যু হার জাতীয় হারের চেয়ে অনেক বেশী। পটুয়াখালীতেও আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ৪ থেকে ১০ জনে উন্নীত হয়েছে। জেলাটিতে এ পর্যন্ত ১,১৫৪ জন আক্রান্তের মধ্যে ৩৫ জনের মৃত্যুর কথা বলা হয়েছে সরকারী হিসেবে । পিরোজপুরেও আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের দুই থেকে ১৩ জনে উন্নীত হয়েছে। জেলাটিতে এ পর্যন্ত ১৪ জনের মৃত্যু ও ৮২৯ জন আক্রান্ত হয়েছে।

তবে বরগুনাতে আগের দিনের আক্রান্ত ২০ থেকে ১০ জনে হ্রাস পেয়েছে। এ জেলাটিতে ইতোমধ্যে ১৪ জনের মৃত্যুর সাথে ৭৫৪ জন আক্রান্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। ভোলাতেও আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ৭ থেকে ৬ জনে হ্রাস পেয়েছে। এ দ্বীপ জেলায় এ পর্যন্ত ৬ জনের মৃত্যু ও ৫৯৮ জনের আক্রান্তের কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। দক্ষিণাঞ্চলে একমাত্র ভোলাতেই এপর্যন্ত মৃত্যুহার ১%-এরও নিচে রয়েছে। সুস্থতার হারও সবচেয়ে বেশী।

ঝালকাঠীতেও শুক্রবার দুপুরের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ৭ থেকে ৪ জনে হ্রাস পেলেও জেলাটিতে মৃত্যুহার অনেক বেশী। ৫৪৫ জন আক্রান্তের মধ্যে ইতোমধ্যে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন