ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

বিদায় মানেই প্রস্থান নয়

ধোনি স্তুতিতে ভাসছে বিশ্ব

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ আগস্ট, ২০২০, ১২:০১ এএম

যেমন তার আগমন, ঠিত তেমনি হঠাৎই প্রস্থান। কোনো আগাম বার্তা না দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছেন মহেন্দ সিং ধোনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই পোস্টের মাধ্যমে ভারতীয় সাবেক এই অধিনায়কের বিদায় নিয়ে আগ্রহের কমতি ছিলনা। তবে তাদেরকেও ছুঁয়ে গেছে বিশ্ব ক্রিকেটের বর্ণিল এক চরিত্রের এই বিদায় ঘোষনা। নিজ দেশের সীমানা পেরিয়ে তার ঢেউ লেগেছে অন্য দেশের ক্রিকেটারদের গায়েও। তার বন্দনায় ভাসছেন তারকা ক্রিকেটাররা। খেলোয়াড় ও অধিনায়ক ধোনির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন তারা।

গত শনিবার সন্ধ্যার পর এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ব্যতিক্রমীভাবে অবসরের ঘোষণা দেন ধোনি। থেমে যায় তার ১৬ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার। এরপর ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় ধোনি বন্দনা। দেশটির জীবন্ত কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকারের ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকা সময়ে ক্রিকেটে এসেছিলেন ধোনি। ব্যাটিং রেকর্ডে প্রায় সবই নিজের করে নেওয়া শচিনের আক্ষেপ ছিল বিশ্বকাপ জয়। ২০১১ সালে ধোনির নেতৃত্বেই সেই স্বাদও পান তিনি। ধোনির বিদায়ে শচিন ফিরে গেলেন ২০১১ সালে, ‘এম এস ধোনি, ভারতীয় ক্রিকেটে তোমার অবদান অমূল্য। ২০১১ বিশ্বকাপ জেতা আমার জীবনের সেরা মুহূর্ত। জীবনের বাকি ধাপের জন্য তোমার ও তোমার পরিবারকে শুভকামনা।’

অভিষেকের পর প্রথম যে ম্যাচে নিজেকে প্রথম চিনিয়েছিলেন ধোনি, পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশাখাপত্তমে সেই ম্যাচে ধোনির প্রথম কোন বড় জুটিতে সঙ্গী ছিলেন বীরেন্দ্রর শেবাগ। আগ্রাসী ব্যাটিং বিশ্ব ক্রিকেটের আরেক বড় নাম ধোনিকে রেখেছেন একদম আলাদা জায়গায়, ‘এম এস ধোনির মতো কেউ নেই, কেউ ছিল না, কেউ আসবেও না। তার মতন একজন খেলোয়াড় থাকা অসম্ভব। খেলোয়াড় অনেক আসবে, আবার চলে যাবে। তবে তার মতন কেউ আসবে না।’

ধোনির ক্যারিয়ারের টাইমফ্রেম সম্পাদিত করা এক ছবি নিজের ফেসবুক পাতায় পোস্ট করে বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান প্রশংসায় ভাসিয়েছেন ধোনিকে, ‘বিদায় মাহেন্দ্র সিং ধোনি। খেলার মাঠে আপনি ছিলেন নিঃসন্দেহে একজন দুর্দান্ত খেলোয়াড় এবং শক্তিশালী প্রতিদ্ব›দ্বী। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অসাধারণ পারফরম্যান্স দিয়ে আপনি অনুপ্রাণিত করেছেন লাখো মানুষকে। আপনার সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য রইলো শুভ কামনা।’ খেলার মাঠে ধোনির সঙ্গে এক ফ্রেমে বাধা এক ছবি পোস্ট করে টুইটারে মুশফিকুর রহিম ক্রিকেটার ধোনির মতো মানুষ ধোনিকেও স্যালুট জানিয়েছে, ‘ক্রিকেটের এক কিংবদন্তি, দুর্দান্ত নেতা। দারুণ কিপার, দুর্দান্ত ফিনিশার, অসাধারণ মানুষ। আপনাকে স্যালুট, ধন্যবাদ মাহি ভাই।’

যার কাছে ভারতের নেতৃত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন ধোনি বিদায় বেলায় সেই বিরাট কোহলির আবেগ যেন একটু বেশি, ‘সব ক্রিকেটারকেই একদিন এই যাত্রা থামাতে হবে। কিন্তু খুব কাছের কেউ ছাড়লে আবেগ স্পর্শ করে যায়। দেশের জন্য আপনি যা করেছেন তা মানুষের হৃদয়ে থাকবে।’ পাকিস্তানের গতিতারকা শোয়েব আখতারের মতে ধোনিকে ছাড়া ক্রিকেট খেলার গল্পই অপূর্ণ থেকে যাবে, ‘ধোনিকে ছাড়া ক্রিকেটের গল্পটা কখনই পূর্ণতা পাবে না। কী দারুণ এক কিংবদন্তি’ ক্যারিয়ারের নানা মুহূর্তের ছবি মিনিট চারেকের ভিডিওতে জড়ো করে অবসর বার্তায় মুকেশের গান, ‘মে পাল দো পাল কা শায়ের হু, পাল দো পাল ম্যারি কাহানী হ্যা।’ জুড়ে দিয়েছিলেন ধোনি। রবীচন্দ্রন অশ্বিন মনে করেন প্রস্থানেও আলাদা স্টাইল রেখে গেছেন তাদের অধিনায়ক, ‘কিংবদন্তিরা বরাবর তাদের নিজস্ব স্টাইলে অবসর নেয়। ধোনি ভাই, আপনি দেশের জন্য সব দিয়েছেন। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়, বিশ্বকাপ জয়। ভবিষ্যতের জন্য শুভকামনা।’

এছাড়া ধোনির অবসরে পোস্ট করেছেন ইংল্যান্ডের কেভিন পিটারসেন থেকে বাংলাদেশের লিটন দাস থেকে অনেকেই। একই দিনে, কয়েক মিনিটের ব্যবধানে এলো অবসরের দুটি ঘোষণা। মহেন্দ্র সিং ধোনির পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন সুরেশ রায়নাও। সাবেক অধিনায়কের সঙ্গে সাবেকদের ক্লাবে যোগ দেওয়ার কথা শনিবার ইনস্টাগ্রামে নিশ্চিত করেন রায়না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন