ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জিয়াউর রহমানের অপরাধ বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেছিলেন

জাতীয় প্রেসক্লাবে রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

১৫ আগস্টের ঘটনায় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে যুক্ত করতে সরকার নানা ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, দুর্যোগময় মুহূর্তে জাতীয় নেতৃত্বের ব্যর্থতায় স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে দায়িত্ব পালন করে জাতির কান্ডারী হিসেবে ভ‚মিকা পালন করেছিলেন একজন মেজর। আজকে তার বিরুদ্ধে মিডিয়ায় বিষেদগার করছেন। 

গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত মরহুম ড. এমাজউদ্দিন আহমেদের স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। রিজভী বলেন, অথচ ১৫ আগস্ট মরহুম শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যু নিয়ে আপনারা (আওয়ামী লীগ) যে মামলা করেছিলেন সেই মামলাতেও জিয়াউর রহমানের নাম ছিল না। তিনি তখন ছিলেন সামরিক বাহিনীর দ্বিতীয় ব্যক্তি, প্রথম ব্যক্তি তার কোনো দায়-দায়িত্ব নেই? কারণ তিনি আওয়ামী লীগ করেন। আওয়ামী লীগের এমপি মন্ত্রী ছিলেন এজন্য তিনি বাদ। আর জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেছিলেন এটাই ছিল তার অপরাধ। তিনি যদি বাকশালকে সাপোর্ট করতেন তাহলে এ ধরনের কোনো কথাই আসতো না।
রুহুল কবির রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের নেত্রীর কষ্ট হচ্ছে জিয়াউর রহমানের এত জনপ্রিয়তা কেন? তার রাজনৈতিক দর্শন বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ এবং বহুদলীয় যে চেতনা এই চেতনা কেন এখানে প্রতিষ্ঠা করেছে এটাই তাদের কষ্ট। জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর তার সহধর্মিণী বেগম খালেদা জিয়া সেই পতকা বহন করেছেন, শেখ হাসিনার চেয়ে গণতন্ত্রের কমিটমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ছিলেন। এ জন্যেই তার প্রতি যত রাগ। মিথ্যা-সাজানো মামলায় তাকে কারাগারে রাখা হয়েছিল। আর আজকে জিয়াউর রহমানকে নানা ষড়যন্ত্র চক্রান্ত করে যুক্ত করতে চাচ্ছে ১৫ আগস্টের সাথে।
আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশের সভাপতিত্বে এবং মহাসচিব এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় স্মরণ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. সুকুমাল বড়ুয়া, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. আবদুল লতিফ মাসুম, বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম প্রমুখ।###

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন