ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ মাঘ ১৪২৭, ০৮ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

মধ্যপ্রাচ্য থেকে দফায় দফায় ফিরছে প্রবাসীরা

জামানত ছাড়াই ঋণ দিচ্ছে সরকার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০২০, ৪:০৫ পিএম

মধ্যপ্রাচ্য থেকে চাকরি হারিয়ে দফায় দফায় দেশে ফিরছে প্রবাসী কর্মীরা। করোনা মহামারির কারণে কাজের পরিসর হ্রাস পাওয়ায় প্রবাসী কর্মীরা দেশে ফিরতে বাধ্য হচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, বাহরাইন ও কুয়েতে কাজ না থাকায় বিপুল সংখ্যক প্রবাসী কর্মী দেশে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছে। গতকাল রাতে ও আজ সকালে বিভিন্ন ফ্লাইট যোগে ১ হাজার ৩ শ’ ৯৩ জন প্রবাসী কর্মী খালি হাতে দেশে ফিরেছে। পরিবারের মুখে হাসি ফুটাতে চড়া সুদে ঋণ নিয়ে এবং ভিটেমাটি বিক্রি করে বিদেশে গিয়ে অভিবাসনের ব্যয়ের টাকাও তুলতে পারেনি এদের অনেকেই। চাকরি হারিয়ে দেশে প্রত্যাগত এসব কর্মীর অভিভাবকদের কেউ কেউ ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে বাড়ি ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। গতকাল সোমবার দুবাই থেকে প্রত্যাগত একাধিক কর্মী এসব তথ্য জানিয়েছেন।
হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক সূত্র জানায়, ইস্তাম্বুল থেকে ৪ টা ৪০ মিনিটে ফ্লাইট (টি কে-৭১২) যোগে ২৪২ জন, ভোর ৫টায় ওমানের মাস্কাট থেকে ফ্লাইট (বিজি-৪১২২) ৪৩২ জন , রাতে মালদ্বীপ থেকে ফ্লাইট (কিউ টু-৬৫০২) যোগে ১৯৯ জন, দুবাই থেকে সকাল ৭ টা ৪০ মিনিটে ফ্লাইট (বিজি-২৪৮) যোগে ২২০ জন এবং সকাল ৮টা ২৪ মিনিটে দুবাই থেকে ফ্লাইট (ই কে-৫৮৫) যোগে প্রায় তিন শতাধিক প্রবাসী কর্মী খালি হাতে দেশে ফিরেছে। বায়রার যুগ্ম মহাসচিব মো.তাজুল ইসলাম বিদেশ থেকে চাকরি হারিয়ে দেশে ফেরত আসা প্রবাসী কর্মীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ইনকিলাবকে বলেন, করোনা মহামারিতে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর অর্থনীতিতে বড় ধরনের ধাক্কা লেগেছে। এ জন্য কাজ না থাকায় অনেক প্রবাসীকে নিরুপায় হয়েই দেশে ফিরতে হচ্ছে। তিনি বলেন, বিদেশ থেকে চাকরি হারিয়ে দেশে ফেরত আসা কর্মীদের পুর্নবাসনে সরকার দু’দফায় ৭শ’ কোটি টাকার ঋণ দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। প্রত্যাগত কর্মীরা নিজ নিজ জেলা ডিএমও অফিসে নিবন্ধন করে জামানত ছাড়াই তিন লাখ টাকা থেকে পাঁচ লাখ টাকা ঋণ পাবেন। বায়রা নেতা তাজুল ইসলাম বিদেশ প্রত্যাগত অসহায় কর্মীরা যাতে কোনো প্রকার হয়রানি ছাড়াই দ্রুত ঋণ পেতে পারে সে জন্য প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
মোকতার হোসেন ১৮ আগস্ট, ২০২০, ৫:১৪ পিএম says : 0
খুবই দুঃখজনক খবর।সরকারের উঠিত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা। একসময় এরাই দেশের জিডিপি তে অবদান রেখে ছিলো।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন