ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

২৪ ঘণ্টার মধ্যে পেঁয়াজ রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিন : ভারতের সাবেক কৃষিমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:৩২ এএম

ভারতের সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে, দেশের বাজারের পরিস্থিতি সামাল দিতে গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ভারত সরকার। কিন্তু তার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ওই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গয়ালকে আর্জি জানালেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী তথা ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি)-র প্রধান শরদ পওয়ার। তার মতে, এই সিদ্ধান্তে আন্তর্জাতিক বাজারে ভারতের ভাবমূর্তি ধাক্কা খেতে পারে। পাকিস্তান এবং পেঁয়াজ রপ্তানিকারক অন্যান্য দেশ এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারে বলেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন শরদ।

পীযূষ গয়ালের সঙ্গে পেঁয়াজের রপ্তানি নিয়ে আলোচনার কথা টুইট করে জানিয়েছেন শরদ। তার দাবি, গয়াল তাকে আশ্বস্ত করেছেন, বাণিজ্য, অর্থ এবং উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রক ঐকমত্যে পৌঁছলে ওই সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নিতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার।

টুইটে শরদ লিখেছেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে পেঁয়াজের ভালো চাহিদা রয়েছে এবং আমরা ধারাবাহিকভাবে তা রপ্তানি করে আসছি, এটা আমি তার (পীযূষ গয়াল) গোচরে এনেছি। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের আচমকা একটা সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক বাজারে পেঁয়াজের ধারাবাহিক সরবরাহকারী হিসেবে ভারতের ভাবমূর্তিতে জোরালো ধাক্কা দিতে পারে।’
অন্য একটি টুইটে শরদ পওয়ার বলেছেন, ‘আমি এটাও জোর দিয়ে বলেছি যে, এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারে পাকিস্তান এবং পেঁয়াজ রপ্তানিকারক অন্যান্য দেশ।’ তার দাবি, কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে মহারাষ্ট্রের কৃষকদের মধ্যে বিপুল ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

এদিকে ভারতের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করছে দেশটির বিভিন্ন কৃষক সংগঠন। ‘সারা ভারত কিসান সভা’র নেতা অজিত নাভালের মন্তব্য, ‘এই নিষেধাজ্ঞায় কৃষকরা ক্ষুব্ধ এবং তারা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

উল্লেখ্য, গত বছরের মতো এবারও হঠাৎ করেই বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের পেঁয়াজে বাজারে। একদিনেই পেঁয়াজের দাম ৬০ থেকে ইতিমধ্যে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে। ভারতের হঠাৎ এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা হচ্ছে বাংলাদেশে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন