ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পেঁয়াজ নিষেধাজ্ঞায় পশ্চিমবঙ্গের ব্যবসায়ীদের ব্যাপক লোকসান, সীমান্তে আটক শতশত ট্রাক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০৮ পিএম

গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ভারত সরকার। আর এতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা ব্যাপক লোকসানের মুখে পড়েছে। দেশটির ব্যবসায়ীদের ভয়, এই সিদ্ধান্তের ফলে তাদের অনেক টাকার লোকসান গুনতে হবে।

পাকিস্তান, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কাতেও ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি হয় কিন্তু ভারতীয় পেঁয়াজের সবচেয়ে বড় বাজার বাংলাদেশ। গত সোমবার ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞা জারির পর পশ্চিমবঙ্গের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিভিন্ন স্থলবন্দরে আটকে গেছে পেঁয়াজ ভর্তি কয়েক শ ট্রাক।

'স্থলবন্দরগুলোর ভেতরে এবং বাইরে মিলিয়ে প্রায় এক হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আটকে গেছে। এদের মধ্যে অনেক ট্রাক শুল্ক বিভাগ থেকে বাংলাদেশে ঢোকার ছাড়পত্র পেয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে তাদের আটকে দেওয়া হয় বলে জানান মিহির ঘোষ, উত্তর ২৪ পরগনার ঘোজাডাঙ্গা স্থলবন্দরের এক রপ্তানিকারক। তিনি জানান, পেট্রাপোলে ১০০টি এবং মালদার মহাদিপুরে ১৫০টি পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক আটকে আছে।

এই পেঁয়াজ রপ্তানি না করতে পারলে আমাদের অনেক ক্ষতি হবে। অনির্দিষ্টকালের জন্য সীমান্তে যদি ট্রাক আটকে থাকে তাহলে পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যাবে এবং আমাদের বড় অংকের লোকসান হবে বলে জানান মিহির বাবু।

তিনি বলেন, হঠাৎ করে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করে ব্যবসায়ীদের বিপদে ফেলে দিয়েছেন ভারত সরকার। বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে জড়িত কিছু ব্যবসায়ী জানিয়েছেন এই নিষেধাজ্ঞা ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে।

পেট্রাপোল ক্লিয়ারিং এজেন্ট সমিতির সম্পাদক, কার্তিক চক্রবর্তী জানান, বাংলাদেশ সরকার যখন ইলিশ রপ্তানি করার অনুমতি দিচ্ছেন, ওই সময় ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত সত্যিই দুঃখজনক।

ভারতের একটি সূত্র জানায়, দেশটিতে প্রতি কিলো পিয়াজের দাম ২০ থেকে ২৫ ইন্ডিয়ান রুপির জায়গায় এখন ৩৫ থেকে ৪০ ইন্ডিয়ান রুপি হয়ে গেছে। রপ্তানি বন্ধ করলে দাম কমতে পারে তাই এই সিদ্ধান্ত। তবে ধারণা হচ্ছে বাংলাদেশে রপ্তানির ক্ষেত্রে ন্যূনতম দাম বেঁধে দিয়ে কিছুদিনের মধ্যেই রপ্তানির অনুমতি দেবে ভারত সরকার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
saif ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:২৯ পিএম says : 0
আশা করছি আমাদের বানিজ্য মন্ত্রনালয় এবং সংশ্লিষ্ট সকলের কিছুটা হলেও লজ্জা ভোদ হবে এবার, এবং তারা নিজের জন্যে দেশের জন্যে এবং জনগনের জন্যে সন্মান জনক পদক্ষেপ নেবেন।
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:২৯ পিএম says : 0
ভারতের সাথে সম্পর্ক চিন্ন করা হোক। Bangladesh must stop all kind of goods import from India. INSALLAH.
Total Reply(0)
মোঃ আইয়ুব আলী সিকদার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৯ পিএম says : 0
বাংলাদেশের জন্য বিশাল রাষ্ট্র ভারতের ব্যাপারে আমাদের খুব সুচিন্তিত পরিকল্পনায় ধাপে ধাপে আগাতে হবে যাতে আমরা বাংলাদেশিরা কখনোই ভারতের প্রতি নির্ভরশীল হয়ে না পরি এবং ভারত বিপদে বাংলাদেশের পাশে দাড়াবে না এই বিষয়টি মিয়ানমারের রাখাইন গনহত্যায় নেতৃত্ব দানের দায়িত্ব নেওয়া মিয়ানমারের সঙ্গে ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বক্তৃতা দেওয়া থেকে শুরু করে সব কিছুতেই প্রমানিত এর আগেও পেঁয়াজ রপ্তানি হটাৎ বন্ধ করে ছিলো এই রাষ্ট্র বডারে বার বার বাংলাদেশের মানুষ গুলোকে হত্যা সহ বিপদ সংকুল কর্মকান্ডের সাথে ভারত জারিত।
Total Reply(0)
Sayeed ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:২৫ পিএম says : 0
ঠিক হয়েছে, খুব জালাইছো দাদারা।
Total Reply(0)
Abu Bakar Siddick ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:২৬ পিএম says : 0
ভারতের পন্য ব্যাবহার বন্দ করো।
Total Reply(0)
Muhammad Rayhan ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:২৭ পিএম says : 0
এটা ইন্ডিয়ার নাটক ছাড়া কিছুই না,, তারা মাঝে মাঝে আমদানি বন্ধ করে বুঝায় তারা ছাড়া আমরা অচল আমাদেরো উচিত ভারত নির্ভর না থেকে অনান্য দেশ থেকে পন্য আমদানি করা,,,
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন