ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

উন্নয়ন নীতিমালা পুনর্মূল্যায়নের দাবি

অটোমোবাইল শিল্প

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

প্রস্তাবিত অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালাটি দেশের বিদ্যমান শিল্পনীতি অনুসরণ করে তৈরি করা হয়নি; বরং এটি বিদ্যমান শিল্পনীতির সাথে সাংঘর্ষিক বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ রিকন্ডিশন্ড ভেহিক্যালস ইম্পোর্টার্স অ্যান্ড ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বারভিডা)।
শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর পল্টনে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে বারভিডা এ দাবি করে। অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট আবদুল হক সম্মেলনে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন দেন এবং উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।
দেশে একটি বাস্তবভিত্তিক, সম্মুখমুখী, ভারসাম্যপূর্ণ ও বাস্তবায়নযোগ্য অটোমোবাইল শিল্প নীতিমালার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেছে বারভিডা। এ লক্ষ্যে বারভিডা সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রণীত প্রস্তাবিত ‘অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালা ২০২০’ এর খসড়াটি পুনর্মূল্যায়নের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।
বারভিডা জানায়, প্রস্তাবিত নীতিমালায় দেশীয় গাড়ি নির্মাণের নামে স্ক্রু ড্রাইভিং শিল্প প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশের ভোক্তাদের প্রয়োজন ও পছন্দের অধিকার খর্ব করে তুলনামূলক নিম্নমানের গাড়ি বেশি দাম দিয়ে কিনতে বাধ্য করার তৎপরতা গ্রহণযোগ্য নয় বলে জানিয়েছে বারভিডা। এছাড়াও দেশে গাড়ি নির্মাণ শিল্প প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয় হলে অভ্যন্তরীণ চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানির সম্ভাব্যতা যাচাই করে দেখা দরকার বলেও বারভিডা মত প্রকাশ করেছে।
সংবাদ সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম। এ সময় বারভিডার সাবেক প্রেসিডেন্ট মো. হাবিব উল্লাহ ডন ও মো. আব্দুল হামিদ শরীফ, ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহা. সাইফুল ইসলাম সম্রাট এবং কার্যনির্বাহী সদস্য আবু হোসেন ভূইয়া (রানু) ও মো. ইউনূছ আলী বক্তব্য রাখেন।
বারভিডা মনে করে, বাংলাদেশ যখন একটি উন্নয়নশীল এবং মধ্যম আয়ের দেশে গ্রাজুয়েশন হতে যাচ্ছে তখন এ দেশের মোটরগাড়ি শিল্পের জন্য একটি বাস্তবভিত্তিক, ভারসাম্যপূর্ণ, সম্মুখমুখী ও বাস্তবায়নযোগ্য নীতিমালা থাকা বিশেষ প্রয়োজন, যার লক্ষ্য হবে দেশের নাগরিক ও ভোক্তাদের সর্বোচ্চ স্বার্থ রক্ষা এবং কর্মসংস্থান ও বিনিয়োগ নিশ্চিত রেখে একটি প্রতিযোগিতামূলক গাড়ি শিল্প প্রতিষ্ঠা করা। এক্ষেত্রে অবশ্যই দেশে আগামী দিনের প্রযুক্তিনির্ভর বিশ্বমানের গাড়ি উৎপাদনের উদ্যোগ নিতে হবে।
অ্যাসোসিয়েশনের অর্গানাইজিং সেক্রেটারি খন্দকার আব্দুল মুমিন (পাপ্পু), কালচারাল সেক্রেটারি বেনজির আহমেদ এবং কার্যনির্বাহী সদস্য সৈয়দ জগলুল হোসেন, মো. জিয়াউল ইসলাম, কাউছার হামিদ, মো. আনিছুর রহমান খান ও মো. মাহবুবার রহমান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন