ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে তবে পচা পেয়াজ নিয়ে বিপাকে আমদানিকারকরা

হিলি (দিনাজপুর) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২:৩৪ পিএম | আপডেট : ৩:৩৭ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানির পর হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজের দাম কমে এসেছে। প্রকার ভেদে এসব পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৪০টাকা প্রতি কেজি দরে। অতিরিক্ত পঁচে যাওয়া পেঁয়াজের প্রতি ৫০ কেজির বস্তা বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ১০০ টাকায়।

আজ রোববার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে তবে অন্যান্য মালামাল আমদানি স্বাভাবিক রয়েছে। আগামীকাল সোমবার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ১৪ ও ১৫ তারিখের রফতানি অনুমতি পাওয়া পেঁয়াজ পুনরায় দেশে আমদানি হতে পারে বলে বন্দরের ব্যবসায়ীরা বলছেন। ্এদিকে শনিবারের আমদানিকরা পচা পিয়াজ নিয়ে বিপাকে পড়েছে আমমদানি কারকরা। তারা বলছে তাদেরকে অধ্য কোটি টাকার লোকশান গুনতে হবে।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানি কারক শাহিনুর ইসলাম জানান, গত ১৩ তারিখে রফতানির অনুমতি পাওয়া পেঁয়াজ গুলো শনিবার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে প্রবেশ করেছে। এদিন ভারত থেকে ১১টি ট্রাকে মোট ২৪৬ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে এই বন্দর দিয়ে।

হিলি বন্দরের আমদানিকারক গুপের সভাপতি হারুনুর রশিদ বলেন, ৫ দিন ধরে পেঁয়াজ গুলো সীমান্তের ওপারে আটকা পরে থাকায় এবং দেশে প্রবেশ করতে না পারায় অতিমাত্রার গরম ও বৃস্টিতে ভিজে পেঁয়াজ গুলো পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে। প্রতি ট্রাকের ৭৫ শতাংশ পেঁয়াজ পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে বলে জনিয়েছে বন্দরের ব্যবসায়ীরা। এঅবস্থায় দারুন ক্ষতির মুখে পড়েছে পেঁয়াজ আমদানি কারকরা।
উপজেলা নিবার্হী অফিসার রাফিউল আলম বলছেন হিলিতে পেয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রনে রাখা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন