ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

বাজার বাড়াতে একসঙ্গে কাজ করবে মেঘনা-জেএমআই

এলপিজি রিফিলিং স্টেশন সম্প্রসারণে চুক্তি সই

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫:৩১ পিএম

এলপিজি রিফিলিং স্টেশন সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) অঙ্গপ্রতিষ্ঠান মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের সাথে কাজ করবে জেএমআই এলপিজি লিমিটেড। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) মতিঝিলে মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের ঢাকা অফিস ‘মেঘনা ভবনে’ আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে এ উপলক্ষ্যে এক চুক্তি সই হয়। চুক্তির আওতায় জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড এখন থেকে মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের নিবন্ধিত ফিলিং স্টেশনে এলপিজি পাম্প স্থাপন ও অটোগ্যাস সরবরাহ করবে।

জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেডের পক্ষে জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুর রাজ্জাক (সিআইপি) এবং মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর সাইফুল্লাহ্-আল-খালেদ চুক্তি স্বাক্ষর করেন। এ সময় উভয় প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমাদের লক্ষ্য পরিবেশ রক্ষা করে সুন্দর ও স্বচ্ছভাবে ব্যবসা করা। এজন্য পরিবেশবান্ধব জ¦ালানি এলপিজির ব্যবসায় আমাদের শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রেখে সততার সাথে ব্যবসা করতে চাই।

তিনি বলেন, চুক্তির ফলে আমরা সারাদেশে থাকা আমাদের নেটওয়ার্কের সাথে যোগ হলো মেঘনা পেট্রোলিয়ামের নেটওয়ার্ক। এর মাধ্যমে আমরা আরও সহজে ও কম খরচে গ্রাহকের দোরগোড়ায় এলপিজি পৌঁছে দিতে চেষ্টা করবো।

মীর সাইফুল্লাহ্-আল-খালেদ বলেন, অটোগ্যাস বা লিকুইফাইড পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি) ইতোমধ্যেই বিশ্বজুড়ে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি হিসেবে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এ চুক্তির মাধ্যমে জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড সারা দেশের যানবাহনে ব্যবহারের জন্য পরিবেশবান্ধব জ্বালানি অটোএলপিজি দ্রুত প্রবেশের বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারবে।

তিনি জানান, বর্তমানে মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের ৮২৯টি ফিলিং স্টেশন রয়েছে। এ চুক্তি অনুসারে মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেড ও বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন উভয় প্রতিষ্ঠান প্রতি লিটার এলপিজিতে শূণ্য দশমিক ৫০ টাকা করে রয়্যালটি পাবে। যা জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস কোম্পানি তাদের প্রতিষ্ঠিত অটোএলপিজি পাম্পের মাধ্যমে বিক্রি করবে।

উল্লেখ্য, দেশের শীর্ষ স্থানীয় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান জেএমআই গ্রুপ ১৯৯৯ সাল থেকে চিকিৎসা সরঞ্জামসহ নানা খাতে সুনামের সাথে ব্যবসা করে দেশে এবং বিদেশে ভোক্তাদের আস্থা অর্জন করেছে। দেশের উন্নয়নের অংশীদার হিসেবে ক্রমবর্ধমান জ্বালানী চাহিদা মেটাতে জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড ২০১৮ সাল থেকে সর্বোচ্চ ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এলপিজি মাদার প্ল্যান্ট স্থাপন করেছে। পাশাপাশি জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড ইউরোপিয়ান প্রযুক্তি ব্যবহার এলপিজি সিলিন্ডার প্ল্যান্ট স্থাপন করেছে, যেখানে বছরে ৯ লক্ষ সিলিন্ডার উৎপাদনে সক্ষম। বাংলাদেশে অটো গ্যাস ব্যবসার মাইলফলক হিসেবে সর্বপ্রথম অটো ট্যাংক উৎপাদন কারখানা স্থাপন করেছে জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড।

জেএমআই গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড বাল্ক অটোগ্যাস বিক্রয়ে দেশের শীর্ষ ৫টি কোম্পানির মধ্যে অবস্থান করছে। পাশাপাশি অটোগ্যাস স্টেশনের যন্ত্রপাতি সরবরাহ, স্থাপন, সার্ভিসিং এবং এলপিজি কনর্ভারসনের সুবিধা প্রদান করে আসছে। এখন পর্যন্ত সারাদেশে ৮০টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে এবং আরও ১২০ টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড (অটোগ্যাস) সকল মালামাল ইউরোপিয়ান মান অনুসরণ করে আমদানি এবং সরবরাহ করছে।

সরকার গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকারের দিক-নির্দেশনা ও নীতিমালার আলোকে দেশব্যাপী অটোগ্যাস ফিলিং স্টেশন স্থাপন ও পরিচালনায় ‘জেএমআই ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস লিমিটেড’ ও ‘মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেড’ এলপি গ্যাসের ব্যবহার বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে যুগান্তকারী আবদান রাখবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Bangladesh ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩৩ পিএম says : 0
Canada checked our gas field to know how large gas layer, not for work. Never trust them anymore. However, any corruption guy found with project just instant death.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন