ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সাউদিয়ার টিকিট যেনো সোনার হরিণ

পাঁচ দিন পার ফিরতি টিকিট ইস্যু শুরু

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

সউদীর পর ওমানেও প্রবাসীরা যাবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পাঁচ দিন ফুটপাতে ঘুমিয়ে সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের ফিরতি টিকিট হাতে পেয়ে মনে হচ্ছে এ যেনো সোনার হরিণ পেলাম। সাউদিয়ার ফিরতি টিকিট রিইস্যু করাতে রাজপথে আন্দোলন করতে হবে, তা কেউ কল্পনাও করেনি। সউদী কফিল বার বার ফোন দিচ্ছে তুই কবে আসবি? গতকাল বৃহস্পতিবার পৌঁনে ৩টায় সোনারগাঁও হোটেলের গেইটের বাইরে ফিরতি টিকিট হাতে নিয়ে সউদী প্রবাসী নোয়াখালীর মিজানুর রহমান ও তার প্রবাসী বন্ধু মসিউর রহমান ইনকিলাবের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন। প্রবাসী মিজান বলেন, করোনা মহামারির আগে সউদী থেকে ছুটিতে দেশে এসে জীবন-জীবিকার সকল স্বপ্ন ধুলিসাৎ হয়ে যাচ্ছিল। পরিবারের সাথে সময় কাটানোর জন্য ছুটিতে এসে এমন ভোগান্তির শিকার হব কোন দিন ভাবতেও পারিনি। সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের ফিরতি টিকিটের জন্য আটকে পড়া প্রবাসী কর্মীদের মাঝে চলছে হাহাকার। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন, সউদী আরবের পর মধ্যপ্রাচ্যের ওমানেও শিগগিরই আটকে পড়া প্রবাসী কর্মীরা দেশটিতে যাওয়ার সুযোগ পাবেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর থেকে সাউদিয়ার ফিরতি টিকিট রিইস্যুর জন্য সোনারগাঁও হোটেলের বাইরে সাউদিয়ার অফিসের সামনে হাজার হাজার প্রবাসী কর্মী ভিড় জমায়। সন্ধ্যা পর্যন্ত চিড়া-মুড়ি খেয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হন এসব অপেক্ষমাণ প্রবাসী কর্মী। সারাদিন প্রবাসী কর্মীকে সাউদিয়ার অফিসে ঢুকতে দেয়া হয়নি। সন্ধ্যার দিকে গেইট খুলে দিলে প্রবাসী কর্মীরা অফিসে প্রবেশ করার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েন। এর আগে সকাল ১১টায় এক পুলিশ কর্মকর্তা মাইকে ঘোষণা দেন, ক্রমিক নম্বর ১ থেকে ৫০০ পর্যন্ত টোকেনধারীদের আজ ফিরতি টিকিট দেয়া হবে। ৫০১ থেকে ৮৫০ পর্যন্তদের শুক্রবার টিকিট দেয়া হবে। ৮৫১ থেকে ১২০০ নম্বর ক্রমিকের শনিবার এবং সিরিয়াল নম্বর ১২০১ থেকে ১৫০০ টোকেনধারীরা রোববার টিকিট পাবেন। আর, যারা এখনও টোকেন নম্বর সংগ্রহ করেননি, তাদের ২৯ সেপ্টেম্বর টোকেন দেয়া হবে। রাস্তায় অপেক্ষমাণ প্রবাসী কর্মী নরসিংদীর মো. শরিফ, মৌলভীবাজারের আব্দুন নূর, গাজীপুরের সুমন, নোয়াখালীর মঈন উদ্দিন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমরা ইন্টারনেটে চেক করে দেখেছি আমাদের ইকামার মেয়াদ বাড়ানো হয়নি। সউদী সরকার যদি ইকামার মেয়াদ ২৪ দিন বাড়িয়ে থাকেন তাহলে আমরা সউদী সরকারকে অভিন্দন জানাই। কিন্ত এ ব্যাপারে বাস্তবে কোনো মিল পাচ্ছি না। গতকাল আটকে পড়া শত শত প্রবাসী কর্মী মতিঝিলস্থ বিমান অফিস ঘেরাও করে তাদের ফিরতি টিকিট রিইস্যুর জোর দাবি জানান। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সূত্র জানায়, আগামী ১ অক্টোবর থেকে সউদী আরবে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করবে তারা।

সউদী আরব ও ওমানগামী বাতিল হওয়া সব রুটের ফ্লাইট ১ অক্টোবর থেকে চালু হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। প্রবাসীরা দেশ দু’টিতে পৌঁছে কাজে যোগ দিতে পারবেন। তবে পিসিআর টেস্টের রিপোর্ট থাকতে হবে এবং পৌঁছে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে জানান মন্ত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার নিজ দপ্তরে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান মন্ত্রী।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সউদী আরবে কাজে যোগদানের বিষয়ে যে উৎকণ্ঠা সৃষ্টি হয়েছিল, আমরা আশা করছি, তার সুষ্ঠু সমাধান হয়েছে। এরপরও আমরা বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি। প্রধানমন্ত্রী প্রবাসীদের সুযোগ-সুবিধা দেয়ার বিষয়ে আগ্রহী জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার প্রবাসীদের বিষয়ে বরাবরই আন্তরিক হয়ে কাজ করছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, প্রবাসী কর্মীরা রোববার থেকে বাংলাদেশের সউদী দূতাবাসে তাদের মেয়াদোত্তীর্ণ ভিসা নবায়ন করতে পারবেন এবং তাদের কাজের অনুমোদন (ইকামা) ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত বৈধ থাকবে।

এদিকে, করোনাকালে ছুটিতে আসা আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে নিতে সাউদিয়া অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঢাকা থেকে ছয়টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করবে। এছাড়াও বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) এর কাছ থেকে আগামী ১ অক্টোবর থেকে আরও বেশি নিয়মিত ফ্লাইটের অনুমতিও চেয়েছে। সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বেশি সংখ্যক বাংলাদেশি প্রবাসীদের সউদী আরবে তাদের কর্মস্থলে পৌঁছে দিতে আগামী ছয় দিন ঢাকা থেকে আমরা ছয়টি ফ্লাইট পরিচালনা করব। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, ‘এ ছয়টি বিশেষ ফ্লাইট ছাড়াও এয়ারলাইন্স তাদের সাপ্তাহিক দুটি নিয়মিত ফ্লাইট ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চালিয়ে যাবে। ১ অক্টোবর থেকে সউদী এয়ারলাইন্স ঢাকা থেকে কয়টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, বেবিচক থেকে অনুমতি পাওয়ার পর এ বিষয়ে তারা গণমাধ্যমকে জানাতে পারবেন।

বেবিচক চেয়ারপার্সন এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান বলেন, সউদী এয়ারলাইন্সের যে কয়টা ফ্লাইট পরিচালনার প্রয়োজন তার অনুমতি দেয়া হবে। বুধবার সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মহামারির সময় ছুটিতে দেশে এসে যারা আটকে পড়েছেন বাংলাদেশের অনুরোধে সেইসব প্রবাসী বাংলাদেশিদের ইকামা ও ভিসার মেয়াদ আরও ২৪ দিন বাড়াতে রাজি হয়েছে সউদী সরকার। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এক ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন সউদী সরকার জেদ্দা ও রিয়াদে বাংলাদেশ বিমানকে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনা করার অনুমতি দিয়েছে।

ঢাকাস্থ সউদী দূতাবাসে আগামী রোববার থেকে দূতাবাস স্বীকৃত এজেন্সিসমূহের মাধ্যমে নতুন ভিসা প্রদান, ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধি, ভিসা ক্যান্সেলের আবেদন গ্রহণ করা হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার সউদী দূতাবাসের অফিসিয়াল টুইটার একাউন্টে এ তথ্য জানানো হয়। এতে আরো বলা হয়, ভিসাধারীদের সউদী আরব বিমানবন্দরে অবতরণের ৪৮ ঘণ্টা পূর্বে বাংলাদেশ সরকারের স্বীকৃত পিসিআর টেস্টে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদধারী হতে হবে। সউদী বিমানবন্দরে যথাযথ গাইডলাইন ফলো করতে হবে। ইকামা, খুরুজ আওদা ভিসা এক্সটেনশন এর ক্ষেত্রে যথানিয়ম অনুসরণ করা হবে। পুরোদমে কাজ শুরু হতে হয়ত আরো কিছুদিন সময় লাগবে। এজেন্সি প্রতিনিধিরা সউদী দূতাবাসে যোগাযোগ করলে বিস্তারিত নিয়মকানুন জেনে নিতে পারবেন। ইতিপূর্বে ভিসা স্ট্যাম্পড হওয়া কর্মীরা নিজ নিজ রিত্রæুটিং এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করতে হবে। এক্ষেত্রে অধৈর্য হওয়া যাবে না।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন