ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নারায়ণগঞ্জের কাশীপুরে শশুর বাড়ী থেকে কিশোরী বধূ টুম্পার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২:৫৪ পিএম

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার কাশীপুরের খিলমার্কেট এলাকায় শ্বশুরবাড়ি থেকে সুবর্ণা আক্তার টুম্পা ওরফে বৃষ্টি (১৫) নামে এক কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টায় মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

নিহত সুবর্ণা আক্তার কাশীপুর ইউনিয়নের খিলমার্কেট এলাকার আবু সিদ্দিকের মেয়ে। সে একই এলাকার আসাদ মিয়ার ছেলে গোলাম রাব্বি (২২) নামে এক তরুণের স্ত্রী।

নিহতের পরিবারের সূত্রে জানা যায়, ৫ মাস আগে প্রেমের সম্পর্ক থেকে সুবর্ণা আক্তার টুম্পা ওরফে বৃষ্টির সঙ্গে গোলাম রাব্বির বিয়ে হয়। গোলাম রাব্বি একজন হোসিয়ারি শ্রমিক। বৃষ্টি, তার স্বামী ও শ্বশুর-শ্বাশুড়ির সাথে খিলমার্কেট এলাকার হারুন মিয়ার বাড়ির চতুর্থ তলায় ভাড়া থাকতেন। বৃহস্পতিবার সকালে রাব্বি ও তার বাবা আসাদ মিয়া কাজে চলে যান। দুপুরে বৃষ্টির শাশুড়ি লাভলী বেগম ননদ আশামনির সন্তানকে আনতে তাদের বাড়ি যান। এরপর দুপুর ১টার পর তারা জানতে পারেন বৃষ্টি মারা গেছে।
নিহত বৃষ্টির বড় ভাই মেহেদী হাসান নাহিদ বলেন, দুপুর ১টায় আমি আমার বোনের জন্য পুড়ি কিনে ওর বাসায় যাই। গিয়ে দেখি ওর ফ্ল্যাটের দরজা খোলা। আর ফ্যানের সঙ্গে বৃষ্টির লাশ ঝুলছে। সে সময় বাসায় পরিবারের সেখানে কেউ ছিল না। পরে আমি পরিবারের সবাইকে খবর দেই এবং থানায় জানাই।
তিনি বলেন, পালিয়ে গিয়ে পছন্দের ছেলের সাথে বিয়ে করেছিল বৃষ্টি। শ্বশুরবাড়িতে কিংবা অন্য কোথাও কোনো ঝামেলা হইছে কিনা সেটা আমরা জানি না। আত্মহত্যার কোনো কারণ দেখছি না।

নিহতের স্বামী গোলাম রাব্বি ও শাশুড়ি লাভলী বেগম বলেন, আমাদের পরিবারে কোনো রকম ঝগড়া-বিবাদ ছিল না। আশেপাশের কারো সঙ্গেও কোনো সমস্যা নাই। আমরা কিছুই বুঝতে পারছি না।

ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রাসেল শেখ বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। লাশের সুরতহালের কার্যক্রম চলছে। নিহতের বাবা-মা নরসিংদী থেকে আসতেছেন। পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন