ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মা-বোনেরা নিরাপদ নয় কেন

মানববন্ধনে প্রশ্ন রিজভীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৬ এএম

নারীর উপর নির্যাতন করা, তাদের সম্ভ্রমহানী করাকে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নিজেদের অধিকার মনে করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ভোট ছাড়া ক্ষমতায় থাকাকে শেখ হাসিনা যেমন নিজের অধিকার মনে করে ঠিক তেমনি নারী নির্যাতন, নারীর সম্ভ্রমহানী করাকে ছাত্রলীগ-যুবলীগ নিজেদের অধিকার মনে করে।

সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনার কয়েকদিন পরেই ঢাকায় ছাত্রলীগের মহানগরের সহ-সভাপতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে নারী নির্যাতনের অভিযোগে। এতো ঘটনার পরেও গত শনিবার আবারও সিলেটে আরেক নারীকে লাঞ্ছনা করা হয়েছে। কে করেছে? ছাত্রলীগের নেতা। তার মানে তারা প্রেরণায় উদ্বুদ্ধ।
গতকাল নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ‘সারাদেশে নারী ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে ও অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে’ মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, স্বাধীন দেশের মা বোনেরা নিরাপদ নয় কেন? এটার জন্য প্রতিবাদ করতে হচ্ছে। শুধু রাজনৈতিক দল নয় সামাজিক সাংস্কৃতিক বিভিন্ন সংগঠন রাস্তায় নেমেছে। ভয়ঙ্কর আতঙ্ক সৃষ্টিকারী ঘটনা থামছেই না। আর সরকার চেষ্টা করছে একটি ঘটনাকে আরেকটি ঘটনা দিয়ে আড়াল করার। তনুকে সম্ভ্রমহানী করার পর হত্যা করা হয়েছিল, সেটিকে আড়াল করা হয়েছিল মিতুর ঘটনা দিয়ে। মিতুর ঘটনাকে আড়াল করা হয়েছিল ত্বকীকে হত্যার মধ্য দিয়ে। আর ত্বকির ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়া হয়েছে নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের মধ্য দিয়ে, একটার পর একটা ঘটনা ঘটলেও সরকারের টনক নড়েনি।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, যে দল নীতি-নৈতিকতা মানে না তার সন্তানেরা কি নীতি-নৈতিকতা মানবে? তারা মানবে না তাদের কাছে লুটপাট নারীর সম্ভ্রমহানি এটা হচ্ছে ডাল ভাত এবং তারা সেটাই করছে। যাদের মুরুব্বিরা নীতি-নৈতিকতা মানে না তারা কেন মানবে। সুবর্ণচর থেকে এমসি কলেজ আপনারা দেখুন কত নারীর আর্তচিৎকার আকাশে বাতাসে ধ্বনিত হচ্ছে। কত নারী লাঞ্চিত হয়েছে? কতো নারীর সম্ভ্রমহানী হয়েছে?
‘মানুষের পাশে কেউ নেই একমাত্র আওয়ামী লীগ আছে’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে আছে করোনায় দেয়া ত্রাণ আত্মসাতের জন্য। ত্রাণ পাওয়া যায় আওয়ামী লীগ নেতার খাটের নিচ থেকে, মাটির ভেতর থেকে। এ কারণেই আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে আছে। কিন্তু মানুষের দুঃখ-দুর্দশা, করোনায় মানুষের আক্রান্ত হওয়া, কোন স্বাস্থ্যসেবা নেই মানুষ হাহাকার করছে।

ছাত্রলীগ-যুবলীগের ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনাদেরকে প্রস্তুত থাকতে হবে গ্রামে গ্রামে পাড়ায় পাড়ায় তাদের বিরুদ্ধে কমিটি গঠন করতে হবে। ছাত্রলীগ-যুবলীগের হাত থেকে মা বোনকে বাচানোর জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। অন্যের ইশারায় আওয়ামী লীগ স্বাধীন দেশকে দখল করে লুটপাট করছে। তাই জনগণের রক্ত ছাড়া, জনগণের ব্যারিকেড ছাড়া মানুষের মুক্তি নেই।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, কৃষকদলের শাহজাহান মিয়া সম্রাট, সাবেক মন্ত্রী ফজলুর রহমান পটলের কন্যা অ্যাডভোকেট ফারজানা শারমিন পুতুল বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন