ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ফ্রান্সে মধ্য আকাশে দুই বিমানের সংঘর্ষে ৫ জনের মৃত্যু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০২০, ১০:২৩ এএম

ফ্রান্সের পশ্চিম-মধ্যাঞ্চলীয় একটি শহরে মাইক্রোলাইট এয়ারক্র্যাফ্টের সঙ্গে অপর এক বিমানের ধাক্কা লাগায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। দু'টি বিমানে সবমিলিয়ে পাঁচ জন যাত্রী ছিলেন। স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।
ফ্রান্সের ট্যুরস শহরের দক্ষিণ-পূর্ব এলাকায় গতকাল শনিবার স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৪টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হালকা উড়োজাহাজ দুটি ভূপাতিত হওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের অন্তত ৫০ জন সদস্যসহ উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান।
দুটি প্লেনের মধ্যে অপেক্ষাকৃত ছোট যানটি পাইলটসহ দুজন আরোহী নিয়ে লোচেস শহরের একটি বাড়ির বেড়ার ওপর বিধ্বস্ত হয়। লোচেস শহরটি টুরস শহর থেকে প্রায় ৪৬ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বদিকে অবস্থিত।
বার্তা সংস্থা এএফপি একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে জানিয়েছে, প্লেনটি একটি বাড়ির বৈদ্যুতিক মিটারের ওপর পড়ার পর তাতে আগুন ধরে যায়।
অন্যদিকে, অপেক্ষাকৃত বড় প্লেনটি তিনজন পর্যটকসহ ৩২৮ ফুট দূরে একটি নির্জন এলাকায় আছড়ে পড়ে।
স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা নাদিয়া সেঘিয়ার বলেন, ‘দুটি প্লেনে থাকা পাঁচজন নিহত হয়েছে।’
নাদিয়া আরো বলেন, ‘লিওন থেকে জরুরি ব্যবস্থাপনা কর্মী এনে প্লেন দুটি কোথায় বিধ্বস্ত হয়েছে, তা দ্রুত শনাক্ত করা হয়েছে।’ তাৎক্ষণিকভাবে দুর্ঘটনার কারণ কিংবা নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি। স্থানীয় পুলিশ এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা গেছে।
২০১৫ সালের মার্চে ফ্রান্সে যাত্রিবাহী বিমান ভেঙে ১৪৮ জন যাত্রীর মৃত্যু হয়। জার্মান এয়ারলাইনসের এয়ারবাস অ-৩২০ বিমানটি স্পেনের বার্সেলোনা থেকে জার্মানির ড্যুসেলডর্ফের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল। বিমানে ১৪২ জন যাত্রী ছাড়াও দুই পাইলট-সহ ছজন বিমানকর্মী ছিলেন। মাঝপথে দক্ষিণপূর্ব ফ্রান্সের বার্সেলোনেট্টে এলাকায় একটি স্কি রিসর্টের কাছাকাছি ভেঙে পড়ে।
ফ্রান্সের মাটিতে ২০০০ সালের পর এটাই ছিল প্রথম বিমান দুর্ঘটনা। ওই বছরের জুলাই মাসে রাজধানী প্যারিসের বাইরে এয়ার ফ্রান্স কনকর্ড বিধ্বস্ত হয়েছিল। এতে ১১৩ জনের প্রাণহানি ঘটে, যাঁদের বেশির ভাগই ছিলেন জার্মান নাগরিক। স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো এক ট্যুইট বার্তায় জানিয়েছিলেন, স্পেন থেকে ছেড়ে যাওয়া উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হওয়ার খবরে তিনি শোকাহত হয়ে পড়েছেন। বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘আল্পস এলাকায় বিমান দুর্ঘটনার খবরে শোকাহত। এটা একটা ট্র্যাজেডি। আমরা ঘটনার তদন্তের জন্য ফরাসি ও জার্মান কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সহযোগিতা করছি।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন