ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ড্যাবের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান ডা. সাইফুলের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

সংগঠনবিরোধী কাজ ও আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে ডা. সাইফুল ইসলাম সেলিম ও ডা. মিজানুর রহমান কাউছারের সকল পদ সাময়িক স্থগিত করেছে ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)। ড্যাবের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, তারা কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির নির্দেশনা সত্ত্বেও ড্যাবের বিএসএমএমইউ শাখার নবগঠিত কমিটির নিকট ব্যাংক একাউন্ট হস্থান্তর করেন নাই। যা সংগঠনের গঠনতন্ত্র বিরোধী। তাদের বিরুদ্ধে সংগঠন বিরোধী কাজ ও আর্থিক অনিয়মের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ড্যাব একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটি যথাযথভাবে তদন্তপূর্বক অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পায় এবং সে মোতাবেক ড্যাবের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির নিকট তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশসহ তদন্ত রির্পোট লিখিত আকারে উপস্থাপন করে। 

ড্যাবের এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছেন ডা. সাইফুল ইসলাম সেলিম। তিনি বলেন, ড্যাব যে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ করেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ড্যাব বিএসএমএমইউ শাখার অ্যাকাউন্টে যে অর্থ গচ্ছিত আছে তা ড্যাবের নয়, বিএসএমএমইউ চিকিৎসক সদস্যদের। এটি তাদের কল্যাণেই ব্যয় হবে। এটি কারো হাতে দেয়া হবে না বলেও জানান তিনি।
ডা. সাইফুল বিএসএমএমইউতে নবগঠিত ড্যাব কমিটিকে অবৈধ দাবি করে বলেন, কাউন্সিলের মাধ্যমে এই শাখায় কমিটি করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। কিন্তু সদস্যদের মতামতের তোয়াক্কা না করে, রহস্যজনকভাবে কমিটি গঠন করে অত্যন্ত ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করা হয়েছে। এই ধরণের কর্মকান্ড গঠনতন্ত্র পরিপন্থী ও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের শামিল।
বর্তমান পরিস্থিতিতে কাউন্সিলবিহীন একটি অবৈধ কমিটির নিকট ব্যাংক হিসাব হস্তান্তর করার কোন আইনগত ভিত্তিও নেই। শুধু কাউন্সিলের মাধ্যমে বিএসএমএমইউ শাখায় কমিটি গঠিত হলে সেই বৈধ কমিটির নিকট
হিসাব হস্তান্তর করার কোন বাধা থাকবে না। এছাড়া ২০০৩ সালে বিএসএমএমইউ’র বিদায়ী কমিটির ডা. আবদুস সালামের নিকট কমিটির বিপুল পরিমান বকেয়া অর্থের হিসাবও বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জানান ড্যাবের এই চিকিৎসক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন