ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বিএনপিকে বাঁচিয়ে রেখেছে আওয়ামী লীগই

সাংবাদিকদের মির্জা ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম

আওয়ামী লীগের সমালোচনায় বিএনপি টিকে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ কথায় কথায় বিএনপির সমালোচনা করে। অথচ তারাই বলে দেশে বিএনপি বলে কিছু নেই। তারাই সমালোচনা করে বিএনপিকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। বিএনপির কথা ছাড়া আওয়ামী লীগের নেতাদের মুখে কোনো কথা বের হয় না। কারণ তারা জানে বিএনপিই একমাত্র শক্তি, যারা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে অপকর্মের প্রতিবাদ করতে পারে। গতকাল বুধবার ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বিচার বিভাগের দায়িত্ব হচ্ছে সরকারের হুকুম পালন করা। তারা ‘হোলিয়ার আরজেন্ট দ্য কোপ’ হয়ে যায় অনেক সময়। অনেক সময় দেখা যায়, পুলিশের থেকেও বড় ভূমিকা পালন করে। ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনে সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, ধর্ষণ প্রতিরোধে সরকার বিভিন্ন ভূমিকার কথা বললেও সেটি কোথাও দেখা যাচ্ছে না। বর্তমানে যে ধর্ষণবিরোধী আন্দোলন হচ্ছে এটা একটি নৈতিকতার আন্দোলন। এতে আমাদের সমর্থন রয়েছে। আমরাও সারা দেশে আন্দোলন করেছি। এখন যারা প্রতিবাদ করছে তাদের আওয়ামী লীগের সমর্থকরা মারধর করছে। এটা কোনো সরকারের কর্মকান্ড হতে পারে না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া অবশ্যই গৃহবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। তাকে মুক্ত করতে দেশে-বিদেশে জনমত তৈরিতে কাজ করছে বিএনপি। সরকার যে উন্নয়নের কথা বলছে, এটি সঠিক নয়। কথিত উন্নয়নের সুবিধা চলে যাচ্ছে একশ্রেণির মানুষের কাছে। ইতোমধ্যে গার্মেন্টস খাতে প্রবৃদ্ধি কমে গেছে। দেশ-বিদেশের পত্রপত্রিকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বার্ষিক প্রতিবেদনে বাংলাদেশের বাস্তব চিত্র ফুটে উঠেছে। দেশের মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে এ সরকার। মানুষ তার ন্যূনতম মৌলিক অধিকার পাচ্ছে না। আইসিটি বা তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দিয়ে কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে। সাংবাদিক কাজল এ কারণে মুক্ত হতে পারছেন না। সংবাদমাধ্যমগুলোতে সরকার সেন্সরশিপ জারি করে সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করছে। ফলে মুক্ত সাংবাদিকতা বলে কিছু নেই।

ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিত প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নির্বাচন কমিশন ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের যেতে উদ্বুদ্ধ করে। ভোটকেন্দ্রে ভোট দিয়ে জনগণ যেন নিরাপদে বাড়ি ফিরতে পারেন; তার পাহারার ব্যবস্থা করে সরকার। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার তার উল্টোটা করছেন। ভয়ভীতি প্রদর্শন করে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে প্রহসনের নির্বাচনের আয়োজন করছে তারা। মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আবারো সেই দৃশ্য দেখেছেন দেশের মানুষ।

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, তার ( নূরুল হক নূর) ক্রিয়েটিভ আইডিয়া রয়েছে। তাকে বিএনপি পৃষ্ঠপোষকতা করে না। তবে সে সত্য কথা বলে। যে কেউ সত্য কথা বললে তাকে সমর্থন করা হয়। বরং সরকারই পৃষ্ঠপোষকতা করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
শারদীয় দুর্গোৎসবে দেশের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে ফখরুল বলেন, করোনা এবং সরকারের দ্বৈতনীতির কারণে ধনীরা আরো ধনী হচ্ছেন, গরিব মানুষ আরো গরিব হচ্ছেন। শ্রমজীবী মানুষের আয় কমে যাওয়ায় তারা দুঃখকষ্টে দিন অতিবাহিত করছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক ও ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মেয়র মির্জা ফয়সল আমীন, দফতার সম্পাদক মামুন-উর রশিদ, সদর উপজেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আতাউর রহমান, মোটর পরিবহন শ্রমিক নেতা আবদুল জব্বার প্রমূখ। #

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন