ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে চাকুরির প্রলোভনে ৯মাস ধরে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২০, ৬:৫৬ পিএম

বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুরে চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে এক যুবতীকে (২৫) ৯মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগ এনে বাবা ও ছেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ পেয়ে মামলার প্রধান আসামী অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট সিরাজুল ইসলামকে (৬৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহষ্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে ধর্ষণ ও প্রতারনার শিকার ওই নারী বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার অপর আসামী হচ্ছেন, সিরাজুল ইসলামের ছেলে মাহবুবুর রহমান (৩৫)।

অভিযোগ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের আমানতপুর মহল্লার বাসিন্দা মৃত মোহাম্মদ উল্যাহর ছেলে অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট সিরাজুল ইসলাম উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ওই যুবতীকে চাকুরি দেওয়ার কথা ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘ ৮-৯মাস যাবত নোয়াখালী এবং ঢাকার বিভিন্ন হোটেলে নিয়ে স্ত্রী পরিচয়ে একাধিক বার ধর্ষণ করে। দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও লম্পট সিরাজুল ইসলাম মেয়েটিকে কোন চাকরি বা বিয়ে করেনি। বিয়ের জন্য চাপ দিলে সিরাজুল ইসলাম নানা তালবাহানা শুরু করে। এক পর্যায়ে ধর্ষকের ছেলে মাহবুবুর রহমান ভয়ভীতি দেখিয়ে যুবতীর কাছ থেকে অলিখিত ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি কামরুজ্জামান সিকদার ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, সার্জেন্ট সিরাজুল ইসলাম মেয়েটিকে চাকুরি ও বিয়ের প্রলোভনে গত ৮-৯ মাস যাবত ধর্ষণ করে আসছিল। সিরাজুল ইসলামের ছেলে মাহবুবুর রহমান মেয়েটির কাছ থেকে অলিখিত ষ্টাম্পে স্বাক্ষর নিয়েছে। মেয়েটির কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে বিকালে অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামী সিরাজুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার ছেলেকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন