ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মির্জাপুরের নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভারতেশ্বরী হোমস পেল স্বাধীনতা পুরস্কার পদক

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৩৮ পিএম

বাংলাদেশের শিক্ষাক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২০ সালের স্বাধীনতা পুরস্কার পদক পেল টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের ঐতিহ্যবাহী আবাসিক নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভারতেশ্বরী হোমস। বৃহস্পতিবার পুরস্কার ২০২০ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এই পুরস্কারে ভূষিতদের হাতে পদক তুলে দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ অনুষ্ঠানে অংশ নেন। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পদক তুলে দেন। এ সময় ভারতেশ্বরী হোমসের পক্ষ থেকে স্বাধীনতা পুরস্কার পদক গ্রহণ করেন কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পরিচালক (শিক্ষা) ও ভারতেশ্বরী হোমসের সাবেক অধ্যক্ষ একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিক প্রতিভা মুৎসুদ্দি।

দক্ষিণ এশিয়াখ্যাত দানবীর ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী রণদা প্রসাদ সাহার হাত ধরে ১৯৩৮ সালে মাত্র ১৪ জন ছাত্রী নিয়ে এই নারী বিদ্যানিকেতনের যাত্রা শুরু হয়েছিল। সেই প্রতিষ্ঠানটিই ২০২০ সালে এসে রাষ্ট্রীয় ও দেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘স্বাধীনতা পুরস্কার’ পদকে ভূষিত হয়। বর্তমানে প্রায় এক হাজার শিক্ষার্থী নিয়ে পরিচালিত এই প্রতিষ্ঠানটি দেশের অন্যতম প্রাচীন নারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

নারীর ভাগ্যোন্নয়নের লক্ষ্যে আরপি তার জন্মস্থান মির্জাপুর গ্রামে মন্মদ পোদ্দারের বাড়ির বাংলাঘরে ১৪ জন ছাত্রী নিয়ে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি শুরু করেন। পরে বাড়ির পাশের লৌহজং নদীর তীরে ১৯৪০ সালে বর্তমান স্থানে এটি স্থানান্তর করে অবকাঠামো নির্মাণ করেন। যার নামকরণ করেন তার ঠাকুর মার মা ভারতেশ্বরী দেবীর নামানুসারে। সম্পূর্ণ আবাসিক এই নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদ্দেশ্যে হলো শিক্ষার্থীদের সর্বক্ষেত্রে আত্মনির্ভশীল করে গড়ে তোলা। শৃঙ্খলা ও নিয়মানুবর্তিতার জন্য ভারতেশ্বরী হোমসের নাম দেশজুড়ে সুবিদিত।

এ বছর জাতীয় পর্যায়ে গৌরবোজ্জল ও কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ দেশের ৯ বিশিষ্ট ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠানকে ‘স্বাধীনতা পুরস্কার ২০২০’ দেয়া হয়েছে। যেখানে একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে শিক্ষাক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ভারতেশ্বরী হোমসকে স্বাধীনতা পদক দেয়া হয়েছে। এর আগে ১৯৮৭ ও ১৯৯৫ সালে জাতীয় পর্যায়ে দু’বার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পুরস্কার পেয়েছিল ভারতেশ্বরী হোমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন