ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

ঢাকায় ফিরলেন জেমি ডে-জামাল ভূঁইয়া

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২০, ৭:১৬ পিএম

ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে’র সঙ্গে তার স্বদেশি সহকারী স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস ও নতুন গোলরক্ষক কোচ লেস ক্লিভলিক


নেপালের বিপক্ষে দুই প্রীতি ম্যাচকে সামনে রেখে প্রায় এক সপ্তাহ আগে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু করেছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। তবে তা দলের প্রধান ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে এবং অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়াকে ছাড়াই। এবার এ দু’জনের আগমনে পূর্ণতা পাচ্ছে জাতীয় দলের আবাসিক ক্যাম্প। করোনাকালে বেশ লম্বা সময় ইংল্যান্ডে থাকার পর বৃহস্পতিবার ঢাকায় ফিরে এসেছেন জাতীয় দলের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে এবং তার স্বদেশি সহকারী স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস। তাদের সঙ্গে এসেছেন নতুন গোলরক্ষক কোচ লেস ক্লিভলিক। পাশাপাশি অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়াও এদিন সকালে ডেনমার্ক থেকে ঢাকায় ফিরে এসেছেন। কোচত্রয়ী ও অধিনায়ক চারদিন কোয়ারেন্টাইনে থেকে ক্যাম্পে যোগ দেবেন। এর আগে দলের আরেক প্রবাসি ফুটবলার তারিক রায়হান কাজী ২৭ অক্টোবর ফিনল্যান্ড থেকে ঢাকায় আসেন। তরুণ এই ডিফেন্ডার দু’দিন কোয়ারেন্টাইনে থেকে বৃহস্পতিবার দলের অনুশীলনে যোগ দেন। তবে পুরোদমে অনুশীলন করেননি তিনি।

তবে দীর্ঘদিন পর ঢাকায় পা রেখেই নতুন উদ্যোমে কাজ শুরু করার জন্য মুখিয়ে থাকার কথা জানালেন কোচ জেমি ডে। প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রভাবে গত মধ্য মার্চে দেশের সব ধরণের খেলাধুলা বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ফলে ছুটি নিয়ে নিজ দেশ ইংল্যান্ডে ফিরে যান জেমি। প্রায় আট মাস পর নিজ কর্মস্থলে ফিরলেন তিনি।

আগামী ১৩ ও ১৭ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নেপালের বিপক্ষে দু’টি ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলবে জাতীয় দল। যে কারণে গত ২৩ অক্টোবর আবাসিক ক্যাম্প শুরু হলেও রায়হান হাসান-সোহেল রানারা পরের দিন থেকে মাঠের অনুশীলনে নামেন। কোচ জেমি বৃহস্পতিবার ঢাকায় নেমেই বলেন,‘ইংল্যান্ডে লম্বা সময় কাটালাম। এখন বাংলাদেশ দলের হয়ে পুনরায় কাজ শুরু করতে মুখিয়ে আছি। নেপালের বিপক্ষে দু’টি ম্যাচ আছে। ছেলেরা অনুশীলনে ফিরেছে। সামনের দিনগুলো আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’ তিনি যোগ করেন,‘গত কয়েক মাস আমরা হোয়াটসঅ্যাপ গ্রæপের মাধ্যমে ছেলেদের নির্দেশনা দিয়েছি ফিটনেস ধরে রাখতে। তারা খুব ভালোভাবে সেটা অনুসরণ করেছে। আসলে করোনাভাইরাসের এই সময়ে নির্দেশনাগুলো পালন করা কঠিন।’ নেপাল ম্যাচ নিয়ে লাল-সবুজের কোচ বলেন,‘বাংলাদেশে ফুটবল ফিরেছে, ছেলেরা অনুশীলনে ফিরেছে, এটা ভালো। অবশ্যই নেপালের বিপক্ষে জিততে চাই আমরা। তবে আমার মনোযোগ শুধু জয়ের দিকে নয়। এই ম্যাচগুলোই পরের বছরের ভিত্তি তৈরিতে কাজে আসবে।’

করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরে হবে না ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের এশিয়া অঞ্চলের বাছাই পর্বের খেলা। আগামী বছর তা শুরু হলে ব্যস্ত সময় কাটাবে বাংলাদেশ দল। তাই কোচ জেমি ডে’র ভাবনায় ২০২১ সাল।

ফিফা প্রীতি ম্যাচকে সামনে রেখে ৫ নভেম্বর নেপাল ফুটবল দল ঢাকায় আসবে। অতিথি দল চারদিন কোয়ারেন্টাইনে থেকে অনুশীলন শুরু করবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন