ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

নিজেকে উজাড় করে দিতে চান সাকিব

‘আমার মতো ভুল যেন কেউ না করে’

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

এক বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ সাকিব আল হাসানের। তবে বাংলাদেশের হয়ে মাঠে নামতে তাকে অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুদিন। দেশসেরা অলরাউন্ডার তাকিয়ে সেই দিনটির দিকে। দেশের হয়ে আবারও নিজেকে উজাড় করে দিতে চান এই অলরাউন্ডার, আরও অনেক জয় এনে দিতে চান বাংলাদেশকে। সাকিবের ক্রিকেটে ফেরার উপলক্ষ্য রাঙিয়ে রাখতে নিউইয়র্কে একটি শুভেচ্ছা বিনিময় সমাবেশ আয়োজন করে ‘শোটাইম মিউজিক।’ সেখানেই আলাপচারিতায় সাকিব শোনালেন তার নিষেধাজ্ঞার দিনগুলির কথা ও ভবিষ্যৎ ভাবনা।
নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে গতকাল থেকে সব ধরনের ক্রিকেট কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন সাকিব। ঘরোয়া ক্রিকেট দিয়েই মাঠে ফিরতে হবে তাকে। করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে জানুয়ারির আগে সূচিতে জাতীয় দলের কোনো খেলা নেই। নিষিদ্ধ হওয়ার আগে সব সংস্করণেই বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে বড় ভরসা ছিলেন সাকিব। ৩৩ বছর বয়সী অলরাউন্ডার বললেন, ফেরার পরও নিজেকে সেভাবেই মেলে ধরতে চান, ‘ভালো লাগছে (নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে)। দোয়া করবেন, যেন দেশের জন্য ভালো খেলতে পারি। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আরও উজ্জ্বল করে তুলতে চেষ্টার কমতি থাকবে না আমার। যতটা সম্ভব সেরা খেলা উপহার দেওয়ার চেষ্টা করব।’ অনৈতিক প্রস্তাব পেয়েও কতৃপক্ষকে না জানানোয় গত বছরের ২৯ অক্টোবর সাকিবকে নিষিদ্ধ করে আইসিসি। নিজের সেই ভুল নিয়ে আক্ষেপ করে সাকিব বললেন, ‘আমার মতো ভুল যেন কেউ না করে।’
নভেম্বরে বিসিবির টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়ে সাকিব ক্রিকেটে ফিরবেন বলে বিসিবি সভাপতি নিশ্চিত করেছেন এর মধ্যেই। তার ফেরার অপেক্ষা শুধু ক্রিকেটভক্তদেরই নয়, আছেন ক্রিকেটাররাও। ঘড়ির কাঁটায় ঠিক তখন ১২টা। ২৮ অক্টোবর পেরিয়ে শুরু হয় ২৯ অক্টোবর। আর ঠিক সেই মুহূর্তেই দীর্ঘদিনের সতীর্থের প্রত্যাবর্তন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবেগঘন একটি পোস্ট দিলেন মুশফিকুর রহিম। সাকিবের মুক্তি মেলার ক্ষণে বুধবার রাতে ফেসবুকে মুশফিক লিখেছেন, ‘আমরা একসঙ্গে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলাম কৈশোরে এবং পেছনে কখনো আর ফিরে তাকাতে হয়নি। গত বছর জোর ধাক্কা খেয়েছিলাম এটা জানতে পেরে যে, আমরা এক বছরের জন্য ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করতে পারব না। একত্রে কত স্মরণীয় স্মৃতি আমরা ভাগাভাগি করেছি, ভালো সময়গুলোকে খুব যত্ন করে লালন করেছি এবং কঠিন সময়ে এক অপরের পাশে দাঁড়িয়েছি।’ তিনি যোগ করেছেন, ‘আমার খুব ভালো লাগছে যে, একটা বছর শেষ হয়ে গেছে এবং ফের আমরা একসঙ্গে মাঠে নামতে পারব। তুমি সবসময়ই চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফিরে এসেছ। তোমার সঙ্গে আরও ম্যাচ জেতানো জুটি গড়তে এবং জাতির জন্য আনন্দের উপলক্ষ এনে দিতে আমার তর সইছে না!’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন