ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মহানবীকে (সা.) কটূক্তি চুয়েট ছাত্র বহিস্কার

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৩৬ পিএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মহানবীকে (সা.) কটূক্তি করায় চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) এক ছাত্রকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।
একই সঙ্গে কেন তাকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না ১৫ দিনের মধ্যে জানাতে তাকে শোকজ করা হয়েছে।
সাময়িক বহিষ্কৃত রায়হান রোমান চুয়েটের কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।
শুক্রবার চুয়েটের একাডেমিক কাউন্সিলের ১২২তম জরুরি সভায় বিষয়টি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন চুয়েটের ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।
ক্যাম্পাস সুত্র জানায়, গত সপ্তাহে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ফেসবুকে একাধিক পোস্ট দেন রায়হান রোমান। এতে মহানবীর অবমাননার পাশাপাশি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন করেন চুয়েটের সাবেক ও বর্তমান কয়েকজন শিক্ষার্থী।
বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসে চুয়েটের স্টুডেন্ট ডিসিপ্লিনারি কমিটি। সভায় শিক্ষার্থী রায়হানকে সাময়িক বহিষ্কারের জন্য সুপারিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়।
চুয়েটের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, মহানবী (সা.) সম্পর্কে অবমাননাকর লেখা ফেসবুকে পোস্ট করার অভিযোগে রায়হান রোমানকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ওই ছাত্রের জবাবের ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
Jack Ali ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৪৭ পিএম says : 2
This shaitan should be killed according to Qur'an. Government is the enemy of Allah as such any body can insult our beloved Prophet [SAW] and Islam and Allah. A muslim cannot be a muslim until and unless be love our Beloved Prophet more than himself. Sura: Al-Ma’idah. Ayat:33. The punishment of those who wage war against Allah and His Messenger and do mischief in the land is only that they shall be killed or crucified or their hands and their feet be cut off from opposite sides, or be exiled from the land. That is their disgrace in this world, and a great torment is theirs in the Hereafter.
Total Reply(0)
রেট ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ৯:০৩ পিএম says : 1
এগুলারে জেলে ভইরা গনধলাই দেয়া উচিত।
Total Reply(0)
Shahid ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ৯:৫২ পিএম says : 1
অনেকে কুটুক্তির চেষ্টা করে মুহাম্মদ (সাঃ) এর সাথে শিশু আয়েশা রাঃ এর বিয়ে নিয়ে। নিতান্ত শয়তানই তাদের উস্কানির মধ্যে রাখে। বিয়ে করলে যে সঙ্গম করতে হবে তা তো না। আগের আমলে দুধের শিশুতে বিয়ে হতো। নির্দিষ্ট বয়স না হওয়া পর্যন্ত তারা তো কিশোর অবস্থা থেকেই সহবাসে যেত না।
Total Reply(0)
N Islam ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৫৫ পিএম says : 1
এখন আর ডিজিটাল আইন ব্যবহৃত হবেনা । সরকারী প্রশাসন জেগে জেগে ঘুমাবে । এদের উপর আল্লাহর লানত পড়ুক ।
Total Reply(0)
salman ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ৫:০৯ এএম says : 1
Bohiskar e sesh na, Ader ................................ uchit.
Total Reply(0)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৪৩ এএম says : 1
রাষ্ট্র কতৃক কঠোরভাবে নাস্তিকদের সাজা দিতে হবে ক্ষণা পরিমাণ ছাড় দেওয়ার সুযোগ নেই। আল্লাহ রাসুল(সাঃ) শানেমানে বাজেকথা বলা এইসব জাহান্নামীর জায়গা এই বাংলাদেশের জমিনে হবেনা। বাংলাদেশের তৌহিদী মুসলিম ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশের মানুষ প্রিয়নবী(সাঃ)কে নিজের জীবনের চায়তেও বেশী শ্রদ্ধাকরে ভালবাসে এই সকল নাস্তিক কাফের ইহুদিদের দালাল দের বিরুদ্ধে কঠিন সিদ্ধান্তনিতে দেরী করার সুযোগ নাই।আল্লাহ্ বাংলাদেশের ইসলামের পক্ষে শান্তিপ্রিয় মানুষ গুলোকে শক্তি দাও রহমতের মাধ্যমে প্রিয়নবী(সাঃ) গোলাম হওয়ার তৌফিক দাও। আমিন।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১১:১৫ এএম says : 1
আসলে একজন মুসলিম হয়েও যদি মোহাম্মদ সাঃ কে অবমাননা করা হয় তাহলে তো বিধর্মিরা তো আরও কটুক্তি করার সাহস পাবে। হাইরে আপসোস। একে আজিবন বহিষ্কার করা হোক সাথে যাবদজিবন কারাদণ্ড দেওয়া হোক। .........রা এত সাহস পাই কোত্থেকে
Total Reply(0)
মোঃ সোহাগ আলী ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১২:৩০ পিএম says : 1
সবাইকে বুঝতে হবে প্রত্যেক ব্যক্তির অন্তরের মধ্যে স্পর্শকাতর কিছু বিষয় রয়েছে। যেমন-মা, বাবা, স্ত্রী, সন্তান, ভাই, বোন এমনকি নিকটাত্মীয় ও প্রতিবেশীদের আত্ম-মান মর্যাদার বিষয়। সর্বোপরি একজন ব্যক্তির অন্তরে আরেকটি বড় স্পর্শকাতর বিষয় আছে সেটি হলো-ধর্ম। প্রত্যেক ব্যক্তির নিজ নিজ ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা, নিবেদন ও ভালোবাসা অবশ্যই বিরাজমান। যদি কোন ব্যক্তির এমনটি না থাকে তাহলে তাকে স্বাভাবিকভাবেই সকলেই নাস্তিক বলে থাকেন। এই বিশ্বে এমন নাস্তিকের সংখ্যা হাতেগোনা কয়েকজন পাওয়া যাবে। তবে একটা বিষয় আমার বোধগম্য হয় না যে, যারা নাস্তিক হিসেবে পরিচিত এরাতো কখনো ইসলাম ধর্ম ব্যতীত অন্য কোন ধর্মের বিষয়ে সোশাল মিডিয়ায় বা গণমাধ্যমে প্রচার করে না। তবে এরা ইসলাম ধর্মকে নিয়ে এতো বাড়াবাড়ি করে কেন? আমার মনে হয় অবশ্যই এদের পিছনে কোন অন্ধ শক্তি রয়েছে সেটা দেশী অথবা বিদেশী। তাই এমন নাস্তিকেরা ইচ্ছে করেই অসৎ উদ্দেশ্যে বিশেষ করে ইসলাম ধর্ম, মুসলিম বিশ্ব ও মুসলিম উম্মাহকে সকলের নিকট হেয় প্রতিপন্ন, ধর্মে ধর্মে বিরোধ, মুসলিম উম্মাহের মনে ক্ষোভ তৈরি করে সমাজে বিশৃঙ্খলা ও জনমনে অশান্তি সৃষ্টির জন্যই এ রকম অপরাধমূলক কার্যক্রম শান্তিপূর্ণভাবে চালিয়ে যাচ্ছে। তুমি নাস্তিক তুমি তোমার মতো করে থাকো, তোমাকে তো আর জোর করে কোন কিছু চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে না। তবে তুমি কেন জেনে শুনে বিশ্বের ২০০ কোটি মুসলমানের মনে আঘাত হানার জন্য এমন গর্হিত কাজ ইচ্ছে মতো করে যাচ্ছ। আমি ব্যক্তিগতভাবে সরকারের পক্ষ হতে এমন অপরাধের জন্য অপরাধীদের বিরুদ্ধে অবশ্যই কঠোর শাস্তিমুলক পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।
Total Reply(0)
Ei ......... ke poolice e din ২ নভেম্বর, ২০২০, ১০:১৯ এএম says : 1
ei ...... ke police er hate tule din
Total Reply(0)
Almamun ৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:২৫ এএম says : 0
Arrested by police.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন