ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ফ্রান্সকে বয়কট করা ঈমানি দায়িত্ব

নবী (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ৯:১১ পিএম

# উত্তরায় বিক্ষোভ সমাবেশে-হেফাজত নেতৃবৃন্দ

বিশ্বের প্রতিটি মুসলমান তার জীবনের চেয়েও বেশি ভালবাসে নবী মুহাম্মদ (সা.) কে। তারা তাঁর জন্য জান মাল তাবৎ কিছু বিসর্জন দিতে প্রস্তুত । তাই নবী মুহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে কেউ সামান্যতম কটুক্তি করবে, তাঁকে নিয়ে তামাশা করবে বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমান এটা আদৌ মেনে নিতে পারে না। সম্প্রতি স¤্রাজ্যবাদী দেশ ফ্রান্স রাষ্ট্রীয় ভাবে রাসুল (সা.) এর যে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করেছে এতে প্রতিটি মুসলমানের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে । গোটা বিশ্বের মুসলমান চরমভবে ব্যথিত এবং মর্মাহত। কিন্তু ইসলাম যেহেতু শান্তির ধর্ম, ধৈর্য ও সহিষ্ণতা শিক্ষাদেয় তাই তারা এখনও ধৈর্য ধারণ করে আছে। কিন্তু ধৈর্যের বাঁধ যখন ভেঙ্গে যাবে তখন পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে এবং ফ্রান্সকে চরম মূল্য দিতে হবে। আজ বাদ জুমা বৃহত্তর উত্তরা হেফাজতে ইসলামের উদ্যোগে আয়োজিত বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশে ওলামায়ে কেরাম এসব কথা বলেন। মাওলানা নাজমুল হাসান এর সভাপতিত্বে এবং মুফতি জহির ইবনে মুসলিম এর পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট আলেম মুফতি কেফায়েতুল্লা আযহারী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ঢাকা মহানগরী মহাসচিব মাওলানা মতিউর রহমান গাজীপুরী, মুফতি ওয়াহিদুল আলম, মাওলানা আনিসুর রহমান, মাওলানা আবদুস সাত্তার, মাওলানা আক্তার উজ্জামান, মাওলানা শিব্বির আহমাদ ও মাওলানা মুফতি কামাল উদ্দীন।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ অরো বলেন, ফ্রান্স রাসূলের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে তার নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই। তাই বিশ্ব অশান্ত হওয়ার পূর্বেই অচিরেই রাসূলের অবমানোনা বন্ধ করতে হবে। বাংলাদেশ সরকারের উচিৎ হবে ফ্রান্স এর দূতাবাস বাংলাদেশে বন্ধ করে দেয়া এবং সংসদে এ ব্যাপারে নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করা। মানবতাবাদী সকল মানুষের ঈমানি দায়িত্ব ফ্রান্সকে বয়কট করে তাদের পণ্য বর্জন করা। গোটা বিশ্বে মুসলমানের ঐক্যবদ্ধ ভাবে এর তীব্র প্রতিবাদ করা এবং জবাব দেয়ার জন্য কার্যকরী প্রদক্ষেপ গ্রহণ করা একান্ত অপরিহার্য।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন