ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নেপাল-পাকিস্তানের পর এবার ভারতের ম্যাপ থেকে কাশ্মীর বাদ দিল সউদী আরব

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৪৫ এএম

ফের মানচিত্র বিতর্ক। ভারতের প্রতিবেশি দেশ নেপাল-পাকিস্তানের পর এবার ভারতের মানচিত্র থেকে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ বাদ দিল সউদী আরব। ভারত সরকার এর তীব্র প্রতিবাদ করেছে। সউদী আরবকে দ্রুত ভুল সংশোধনের আবেদনও জানানো হয়েছে।
এ বছর জি-২০ বৈঠকের আয়োজক দেশ সউদী আরব। সেই উপলক্ষে দেশের মানিটারি অথরিটি একটি ব্যাংক নোট তৈরি ছাপিয়েছে। যেখানে জি-২০ সদস্য দেশ হিসেবে ভারতের মানচিত্রও দেয়া হয়েছে। তবে সেই মানচিত্রে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখকে বাদ দেয়া হয়েছে।
গত ২৪ অক্টোবর ওই নোটটি প্রকাশ করা হয়। আর এ নিয়ে ভারত সরকার এর তীব্র প্রতিবাদ করেছে। সউদী আরবকে দ্রুত ভুল সংশোধনের আবেদন জানানো হয়েছে।
শুক্রবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, নয়াদিল্লির সউদী আরব দূতাবাস এবং রিয়াদে আরবের প্রতিনিধিদের বিষয়টি জানানো হয়েছে। দ্রুত ভুল স্বীকার করে তারা যাতে ভারতের মানচিত্র সংশোধন করে সেজন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। একই বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, জম্মু ও কাশ্মির এবং লাদাখ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এ কথা সকলকে মনে রাখতে হবে।
উল্লেখ্য, কয়েক মাস আগে ভারতের বিতর্কিত লিপুলেখ এবং কালাপানি অঞ্চলকে নিজেদের দাবি করে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে নেপাল প্রথম বিতর্কের জন্ম দেয়। নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি ওলি সংসদে একটি নতুন মানচিত্র পেশ করেন। সেখানে ভারত-নেপাল সংলগ্ন অঞ্চল নেপালের অংশ বলে দেখানো হয়।
এর মাঝেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান একটি বিতর্কিত মানচিত্র পেশ করেন। সেখানে দেখা যায়- কাশ্মীর, লাদাখের কিছু অংশ এবং গুজরাটের কিছু অংশ পাকিস্তানের মানচিত্রে যুক্ত করা হয়েছে।
পাকিস্তানের ওই মানচিত্র নিয়েও ভারত তীব্র প্রতিবাদ জানায়। আন্তর্জাতিক মহলেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। সম্প্রতি মস্কোয় একটি অধিবেশনে পাকিস্তান ওই একই মানচিত্র দেখালে ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান।
এবার সেই একই বিতর্কে শুরু হলো সউদী আরবকে নিয়েও। যদিও বিশেষজ্ঞদের একাংশের বক্তব্য, নেপাল বা পাকিস্তানের মতো সউদী আরব ইচ্ছাকৃতভাবে এ কাজ নাও করে থাকতে পারে। সূত্র : ডি ডব্লিউ

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
শাহাব হাওলাদার ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১১:২৬ এএম says : 0
সউদী আরবকে অসংখ্য ধন্যবাদ
Total Reply(0)
প্রবীর কুমার রায় ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১১:৩৩ এএম says : 0
সুন্দর। কাশ্মীর স্বাধীন হউক সাথে ফিলিস্তিন নিয়েও ভাবেন। ইসরাইলকে স্বীকৃতি দিয়ে কাশ্মীরের দুঃখ অনুধাবন করতে পারবেন তো?
Total Reply(0)
Md Masud Kabir ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১১:৩৪ এএম says : 0
কাশ্মীর তো কখনও ভারতের ছিলনা,এটা স্বাধীন রাষ্ট্র, ভারত অন্যায়ভাবে দখলে রেখেছে ।
Total Reply(0)
Monir Howlader ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৯ পিএম says : 0
আশা করি সৌদি সিদ্ধান্তে অটল থাকবে।
Total Reply(0)
Abdul kader ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১২:২৩ পিএম says : 0
আমরা সকল মুসলিম ভাই এক হলে অমুসলিমদের ভয়ে পালানো ছাড়া পথ থাকবেনা ইনশাল্লাহ
Total Reply(0)
Badsha Ahmed ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৯ পিএম says : 0
লাদাখ কাশ্মীর একটি বিতর্কিত এলাকা সেখানে সৌদি কিভাবে ভারতের অংশে দেখাবে?
Total Reply(0)
habib ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৩৮ পিএম says : 0
Its unfortunate that 57 OIC members fail to protect oppress Muslim around the world
Total Reply(0)
Tawhid ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ৫:০২ পিএম says : 0
thanks to saudi arabia
Total Reply(0)
আঃ রশিদ ৫ নভেম্বর, ২০২০, ১০:০৪ এএম says : 0
উপযুক্ত কাজ করল সাউদি। সরকার।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন