ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

ভোট সুষ্ঠু হওয়ার সুযোগ নেই- এসএম জাহাঙ্গীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০২০, ১১:৪৭ এএম

ঢাকা-১৮ আসনের উপ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেছেন, ভোট সুষ্ঠু হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ সরকার ২০১৪ সালে ও ২০১৮ সালে যেভাবে ভোটার। বিহীন নির্বাচন করেছে ঠিক একই ভাবে ঢাকা-১৮ আসনেও ভোটার বিহীন নির্বাচন করে বিজয়ী হতে চায়। তার জন্য যা যা করা দরকার সব করছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা ৪০ মিনিটে আবদুল্লাহপুর আদর্শ বিদ্যা নিকেতনে ভোট প্রধান শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

জাহাঙ্গীর বলেন, এ উপ নির্বাচন ছিলো আওয়ামীলীগের জনপ্রিয়তা যাচাই করার একটা উত্তম সুযোগ কিন্তু তারা সেটা করেনি। এ উপ নির্বাচনের মাধ্যমে তারা যাচাই করতে পারতো তারা কতটা জনপ্রিয়, কিন্তু সে পথে না গিয়ে তারা ভোটার বিহীন নির্বাচনের পথে গেছে।

বিএনপির এ প্রার্থী বলেন, এ নির্বাচনে ভোটের কোনো পরিবেশ নেই। তারা তাদের দখলদারিত্ব বজায় রেখেছে, জনবণের গণতন্ত্র হরণ করেছে, ভোটাধিকার হরণ করেছে।

জাহাঙ্গীর অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামীলীগ যেভাবে বাহির থেকে সন্ত্রাসীদের জড়ো করেছে, ঢাকার বাহির থেকে, গাজীপুর, সাভার থেকে সন্ত্রাসী এনে জড়ো করেছে। ভোটাররা ভোট কোন্দ্রে যেতে পারছেনা, তাদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। শুধু আওয়ামী সন্ত্রাসীরা নয় সাথে সাথে পুলিশও তাদের সহযোগীতা করছে, আমাদের নেতাকর্মীদের মারধর করে বের করে দিচ্ছে। ভোটারতো দূরের কথা আমাদের এজেন্ট ও ঢুকতে দিচ্ছেনা।

তিনি বলেন, সকাল থেকে এখন পর্যন্ত একটা কেন্দ্রেও আমাদের এজেন্ট কে ডুকতে দিচ্ছে না। দুই একটা কেন্দ্রে এজেন্ট গেছে তাদের বের করে দেয়া হচ্ছে, পুলিশ গিয়ে ধমকাচ্ছে আর আওয়ামী সন্ত্রাসীরা গিয়ে বের করে দিচ্ছে।

বিএনপির এ প্রার্থী আরো বলেন, মালেকা বানু আদর্শ বিদ্য নিকতেনে আমাদের ১০ জন নেতাকর্মী ও সমর্থককে ধরে নিয়ে গেছে। দুইজন এজেন্টকে বের করে দিয়েছে, এখন এ কেন্দ্রে কোনো এজেন্ট নেই।

যুবদলের এ নেতা বলেন, তারা কোনো ভাবে চায়না জনগণ ভোট দিতে আসুক, জনগণ ভোট দিতে আসলো আওয়ামী লীগের পরাজয় হবে তারা ধানের শীষে ভোট দিবে। সেজন্য তারা ঢাকার বাহির থেকে সন্ত্রাসী এনে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ক্যাম্প করেছে। অথচ আইনে বলা আছে নির্বাচনের দিন কেন্দ্রের আশপাশে ১৪৪ ধারা থাকবে অথচ আওয়ামী লীগ প্রতিটা কোন্দ্রের সামনে ক্যম্প বসিয়েছে। কারণ তারা চায়না কোনো ভাবে ভোটাররা ভোট দিতে আসুক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন