ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ মাঘ ১৪২৭, ০৮ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

চট্টগ্রামে হেফাজতে ইসলামের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রাম ব্যুরো ও হাটহাজারী সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০২০, ১২:১০ পিএম | আপডেট : ১:১২ পিএম, ১৫ নভেম্বর, ২০২০

সারা দেশ থেকে আসা প্রতিনিধিদের অংশ গ্রহণের মধ্যদিয়ে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জাতীয় প্রতিনিধি সম্মেলন (কাউন্সিল) শুরু হয়েছে। হেফাজতের কেন্দ্রীয় কার্যালয় হিসাবে পরিচিত চট্টগ্রামের আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসায় সকাল সাড়ে ১০টায় সম্মেলন শুরু হয়।
সম্মেলনকে ঘিরে হাটহাজারী জুড়ে নেতাকর্মীদের ভিড়ে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিনিধিরা সম্মেলনে প্রবেশের সুযোগ পেয়েছেন। এর বাইরে শত শত নেতকর্মী হাটহাজারী মাদরাসার আশপাশে অবস্থান নিয়েছেন।
প্রতিষ্ঠার দশ বছর প্রথম এই কাউন্সিলকে ঘিরে সারা দেশে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে।
হেফাজত নেতারা জানান, দিনব্যাপী এই সম্মেলন ও কাউন্সিলে সারা দেশ থেকে আসা পাঁচ শতাধিক প্রতিনিধি হেফাজতের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন।
কে হচ্ছেন হেফাজতের আমির তা নিয়ে দেশ-বিদেশে ব্যাপক আগ্রহ দেখা দিয়েছে। সম্মেলনে সারা দেশ থেকে আসা প্রতিনিধিদের মতামতের ভিত্তিতে ১৫১ সদস্যের নতুন কমিটি গঠন করা হবে।
সম্মেলনে যোগ দিতে আগেই দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিনিধিরা চট্টগ্রাম আসেন। সম্মেলন চলবে বিকেল পর্যন্ত। পরে সম্মেলনের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হবে বলে জানান হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী। তিনি বলেন, সারা দেশ থেকে আগত প্রতিনিধিরা সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন। অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে সম্মেলন চলছে।
বিগত ২০১০ সালের ১৯ জানুয়ারি হেফাজতে ইসলামের যাত্রা শুরু হয়। দেশে নাস্তিক মুরতাদ ও ইসলাম অবমানকারীদের বিরুদ্ধে ১৩ দফা দাবিতে আন্দোলন করে দেশব্যাপী ব্যাপক পরিচিতি পায় এই সংগঠনটি।
শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেতৃত্বে ঢাকামুখী লংমার্চ শেষে শাপলা চত্বরের স্মরণকালের সর্ববৃহৎ মহাসমাবেশ দেশব্যাপী অভূতপূর্ব গণজাগরণের সূচনা হয়। এরপর শাপলা ট্র্যাজেডি হিসাবে পরিচিত হেফাজতের সমাবেশে নজিরবিহীন দমন-পীড়ন এবং দেশব্যাপী হেফাজতের নেতাকর্মীদের ব্যাপক ধরপাড়কে কিছুটা কোণঠাসা হয়ে যায় হেফাজত।
তবে কওমি মাদরাসা সনদের স্বীকৃতিসহ কয়েকটি কারণে সরকারের সাথে হেফাজতের সম্পর্ক তৈরী হয়।
সর্বশেষ ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে মাত্র কয়েক দিনের নোটিশে রাজধানীতে ফরাসি দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে মানুষের ঢল নামার ঘটনায় হেফাজতে ইসলাম ফের আলোচনায় আসে।

হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী ইন্তেকাল করেন। আজকের সম্মেলনে নতুন আমির নির্বাচন করে হেফাজতের নতুন পথচলা শুরু হবে বলে জানান নেতারা।
কাউন্সিলরাই নির্ধারণ করবেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর স্থলাভিষিক্ত কে হবেন। জানা গেছে আমির হিসাবে আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী ও শাইখুল হাদিস আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী এবং মাওলানা নুর হোসাইন কাসেমীর নাম আলোচনায় আছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন