ঢাকা সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র চলছে

সম্পাদকমন্ডলীর সভায় ভিডিও কনফারেন্সে শেখ হাসিনা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে দেশি-বিদেশি নানা ষড়যন্ত্র চলছে। ফেসবুক-ইউটিউবে গুজবে অপপ্রচার চলছে। এসবের ওপর ভিত্তি করে স¤প্রদায়িক স¤প্রীতি নষ্টের অপচেষ্টা চলছে, আমরা দেখতে পাচ্ছি।

গতকাল আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমন্ডলীর সভায় ভিডিও কনফারেন্সে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। বিএনপির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তারা মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে। বিভিন্ন উপনির্বাচনে তারা প্রার্থী দেয়। নির্বাচনের আগে খুব হইচই করে। কিন্তু নির্বাচনের দিন দুপুরে পরাজয়ের ভয়ে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয়। মূলত নির্বাচনের প্রশ্নবিদ্ধ করতেই তারা এরকম করে। তিনি বলেন, আপনারা যা ইচ্ছা লিখতে পারেন, এতে হয়তো পত্রিকার কাটতি বাড়বে। হয়তো এনজিওর জন্য বিদেশি ফান্ড আসবে। কিন্তু এই ফান্ড কোথায় যায় ভবিষ্যতে এটার হিসাব নেওয়া শুরু করব। সমালোচকদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, সমালোচনা হলে ভালো, এতে সরকারের কার্যক্রমের ভালোমন্দ আমরা বুঝতে পারি। কিন্তু অপপ্রচার কেন? সমালোচনায় আমাদের আপত্তি নেই, ভালো কাজ করলে সেটা একটু স্বীকার করবেন। দুর্নীতি-অনিয়ম করে আয় করা টাকা করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির এ সময়ে জীবন বাঁচাতে কাজে আসেনি বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা সময় দেখা যেতো একটু থেকে আরেকটু হলেই চিকিৎসার জন্য বিদেশ চলে যেতো। কিন্তু করোনা বুঝিয়ে দিয়ে গেলো টাকা-পয়সার কোনও মূল্য নেই। আর মনে হয় করোনাভাইরাস এসেছে মানুষকে শিক্ষা দিতে।

দলীয় নেতাকর্মীদের ‘প্রাপ্তির জন্য’ রাজনীতি না করে ‘জনগণের কল্যাণে’ কাজ করার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা দেখিয়ে দিলো টাকা-পয়সা কোনও কিছুরই মূল্য নেই। বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ যেখানে করোনা সামলাতে হিমশিম খেয়েছে, সেখানে আমরা আমাদের অর্থনৈতিক কার্যক্রম একদিনের জন্যও থামতে দেইনি। অনেক উন্নত দেশের প্রবৃদ্ধি যেখানে মাইনাস গ্রেডে, সেখানে আমরা প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য হয়তো ধরে রাখতে পরিনি। কিন্তু পাঁচের ওপরে আমাদের প্রবৃদ্ধি থাকবে বলে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে।

এ সময় করোনা পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় বেশি করে খাদ্য উৎপাদনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। করোনায় অর্থনীতির গতি ধরে রাখতে সরকারের নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, করোনাভাইরাস এসে সারা দুনিয়া স্থবির করে দিয়েছে। আমাদের দল, আমাদের সরকার কিন্তু থেমে থাকেনি। জনগণের জন্য কাজ করে চলছি। অর্থনৈতিক কার্যক্রম সচলে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে প্রণোদনা দিয়েছি।

তিনি বলেন, আমার করোনা মহামারিতে মৃত্যুর হার কম রাখতে সক্ষম হয়েছি। কারণ ঘাবড়ে না গিয়ে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছি। করোনা সংক্রমণ শুরুর পরই দুই হাজার ডাক্তার নিয়োগ করেছি, নার্স নিয়োগ দিয়েছি। এ সময় করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা সামলাতে সবাইকে সতর্ক হওয়ার আবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনার আবার একটা ধাক্কা আসছে। সচেতন হলে কিন্তু সুস্থ থাকা যায়। মাস্ক পরতে হবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে, এখন এর বিকল্প নেই। ভ্যাকসিন আসছে, তা নিয়ে নানা গবেষণা চলছে। আমরা আগাম টাকা দিয়ে রাখছি। যখনই বাজারে আসবে আমরাও পাবো। এখন মাস্ক পরা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিকল্প নেই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের জন্য করোনা ভ্যাকসিন নিশ্চিত করার জন্য ১ হাজার কোটি টাকা দিয়ে আগাম ভ্যাকসিন অর্ডার দেয়া হয়েছে। এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে আগাম ভ্যাকসিন অর্ডার করেছে সরকার। করোভাইরাস পরবর্তী সময়ে যেন খাদ্য সংকট তৈরি না হয় এজন্য উৎপাদন বাড়াতে হবে। খাদ্য সংকট যেন তৈরি না হয় এজন্য সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা প্রত্যন্ত এলাকাতেও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার চেষ্টা করেছি। এমনও সময় ছিল যখন হাঁচি দিলেও অনেকে বিদেশে চিকিৎসা করাতে যেত। করোনাভাইরাস আমাদের শিখিয়েছে দেশেই চিকিৎসা সেবা নেওয়া সম্ভব।

সরকারের নানামুখী সমালোচনার জবাবে সরকারপ্রধান বলেন, আমার জানতে ইচ্ছে হয়, যারা বলেন দেশে গণতন্ত্র নেই, তাদের কাছে আমার প্রশ্ন, জিয়া যখন হত্যা-ক্যু করে ক্ষমতা দখল করেছিল, ‘৯৬ সালে দ্বিতীয়বার যখন খালেদা জিয়া ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এলো, ২০০১ এ বিএনপি-জামায়াত জোট মেয়েদের ওপর যখন অমানবিক নির্যাতন করলো তখন কি গণতন্ত্র ছিল?

আওয়ামী লীগ আগামীর চিন্তা করে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ এমন একটি সংগঠন যাদের একটি লক্ষ্য আছে, দেশ নিয়ে পরিকল্পনা আছে। আমাদের রাজনীতির মূল লক্ষ্য জনগণের কল্যাণে এবং দেশের উন্নয়নে রাজনীতি করা। কিছু পাওয়া নয়, মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির মূল লক্ষ্য।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Md Shohal ২০ নভেম্বর, ২০২০, ২:৪৬ এএম says : 0
দেশের উন্নয়নে শেখ হাসিনাকে অনেক বেশি দরকার। তবে আপনারা মুসলমানদের পাশে থেকে রাষ্ট্র পরিচালনা করুন।
Total Reply(0)
salman ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৪:১৬ এএম says : 0
Amader CHOK ki Bondho, .............?? Amra deksi konta Sotto r Konta Mittha.
Total Reply(0)
প্রিয়সী ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৫:১৩ এএম says : 0
কোন ষড়যন্ত্রেই আর কোন কাজ হবে না।
Total Reply(0)
রুহান ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৫:১৪ এএম says : 0
এদেশের মানুষ আর কোন ষড়যন্ত্রকে সফল হতে দেবে না।
Total Reply(0)
গিয়াস উদ্দীন ফোরকান ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৫:১৫ এএম says : 0
মুখে নয় করোনার ব্যাপারে সরকারের কার্যকরী পদক্ষেপ প্রয়োজন
Total Reply(0)
দামাল ছেলে ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৪৬ এএম says : 0
সরকার কোনদিনও বেকায়দায় পড়বে না ইনশাআল্লাহ
Total Reply(0)
Ahmed Rubel ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৪৭ এএম says : 0
সরকার প্রধান ঠিক থাকলে উদার মনের হলে আর আওয়ামীলীগের সুবিধাবাদী নেতারা ক্ষতি না করলে কেউ সরকার কে বেকায়দায় ফেলতে পারবে না, ফেসবুক ইউটিউব কেউ কিছু করতে পারবে না এবং ফেসবুক ও ইউটিউবে কোন গুজব লেখা হচ্ছে তা কেউ দেখাতে পারবে না, বেকায়দায় ফেলতে সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দল যারা ও দলীয় পদ পদবী তারা চাইবে,আমারা সাধারণ জনগণ নয়।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন