ঢাকা সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

টিসিবির পেঁয়াজের ট্রাকে ক্রেতা নেই

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্যের ট্রাকে এখন আর ক্রেতার ভিড় নেই। বিদেশ থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ ক্রেতারা কিনতে চায় না। রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় ট্রাক ভর্তি পেঁয়াজ নিয়ে ডিলারা অলস সময় কাটাতে দেখা যায়। ক্রেতাদের অভিযোগ বিদেশ থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের স্বাদ দেশিটার মতো নয়। এ ছাড়া এত বড় পেঁয়াজ একটা একবারে শেষও করা যায় না।

আরামবাগ টিএন্ডটি কলেজের উল্টো পাশে রাস্তার উপর টিসিবি পণ্যের ট্রাকের সামনে গতকাল ক্রেতার কোন ভিড় দেখা যায়নি। দু’একজন ক্রেতাকে পেঁয়াজ হাতে দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। তাদের একজন খালেক মিয়া। তিনি ফকিরাপুলের এক হোটেল কর্মচারি। খালেক বলেন, বিদেশী এই সব বড় পেঁয়াজ মানুষ কিনতে চায় না। এসব বড় বড় পেঁয়াজ আমরা হোটেলের জন্য কিছু কিনি। এ জন্য এটা খুব বেশি বিক্রি হয়না। ট্রাকের এক বিক্রয় কর্মী কামরুল বলে, সকাল ১০টা থেকে আমরা এখানে এসেছি। এখন ১২টার বেশি বাজে। এখনো ২০ ওকজি পেঁয়াজ বিক্রি হয় নাই। মানুষ এই সব বড় বড় বিদেশী পেঁয়াজ কিনে না। দেশি ছোট পেঁয়াজ আনলে এতক্ষণে পুরা এলাকায় মানুষের লাইন থাকতো। কিছুদিন আগেও রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে টিসিবির ট্রাকগুলোতে ছিল ক্রেতারাদের উপচে পড়া ভিড়। বাজার মূল্যের চেয়ে প্রায় অর্ধেক দামে ন্যায্যমূল্যের পণ্য কিনতে মানুষ ছুটে আসতো। কিন্তু অনেক পণ্যের মান খুব খারাপ হওয়ায় ক্রেতারা এখন মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।
রাজধানীর মতিঝিলে গতকাল টিসিবির ট্রাকে কোন ক্রেতা না থাকায় বিক্রেতাকে পেঁয়াজের উপর শুয়ে ঘুমাতে দেখা গেছে। এ ছাড়া প্রেসক্লাব, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজারসহ কয়েকটি স্পটে টিসিবির ট্রাক সেলে ক্রেতাদের দীর্ঘলাইন দেখা যায়নি। যে সব ট্রাকে আলু, চিনি, মশুর ডাল, সয়াবিন তেল এসব পণ্য বিক্রি করা হয়েছে সে গুলোতে কিছু ক্রেতা দেখা গেছে। তবে শুধু বিদেশী বড় পেঁয়াজ সেব ট্রাকে বিক্রি হয়েছে সেখানে কোন ক্রেতা নেই। বিক্রেতারা শুয়ে বসে অলস সময় পার করতে দেখা গেছে।
টিসিবির ট্রাকে আলু ২৫ টাকা, পেঁয়াজ ৩০ টাকা, চিনি ৫০ টাকা, মশুর ডাল ৫০ টাকা কেজিতে এবং সয়াবিন তেল ৮০ টাকা লিটারে বিক্রি হচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন