ঢাকা সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যাপক ব্যবহারের বিরুদ্ধে সচেতনতা বৃদ্ধি করুন

ওয়ান হেলথ গ্লোবাল লিডারস গ্রুপ’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যাপক ব্যবহারের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী সচেতনতা বৃদ্ধি করার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল রেসিস্টেন্স মানুষ এবং পশুদের জন্য একটি বিশ্বব্যাপী জনস্বাস্থ্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিপন্ন খাদ্য উৎপাদন আমাদের সর্বনাশা ফলাফলের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। সহজলভ্য অ্যান্টিবায়োটিক শেষ হয়ে যাচ্ছে এবং শীঘ্রই আরেকটি বৈশ্বিক জরুরি অবস্থার সম্মুখীন হতে পারি, বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারির চেয়ে অনেক কঠিন।

তিনি আরো বলেন, এ ম্যানাস যুগ যুগ ধরে বৈজ্ঞানিক অগ্রগতির মাধ্যমে অর্জিত আমাদের চিকিৎসা এবং থেরাপিউটিক সাফল্যের অধিকাংশই ফিরে আসার সম্ভাবনা রাখে। অ্যান্টিবায়োটিক, ভুল ডোজ এবং সামগ্রিকভাবে দরিদ্র সংক্রমণ প্রতিরোধের অপ্রয়োজনীয় ব্যবহার এই কবরের পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে।
গতকাল ‘অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রতিরোধের উপর ওয়ান হেলথ গ্লোবাল লিডারস গ্রুপ’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে কো- চেয়ার হিসেবে যোগ দেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডবিøউএইচও (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা), এফএও (খাদ্য ও কৃষি সংস্থা) এবং ওআইই (প্রাণী স্বাস্থ্যের জন্য বিশ্ব সংস্থা) সমন্বিত পদক্ষেপ এবং সমষ্টিগত বৈশ্বিক শাসনব্যবস্থার জন্য এই গ্রæপ প্রতিষ্ঠার জন্য তাদের উদ্যোগের জন্য অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রতিরোধের গুরুতর চ্যালেঞ্জ।
তিনি বলেন, ২০১৫ সালে ডবিøউএইচও গেøাবাল অ্যাকশন প্ল্যান দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে, আমরা বাংলাদেশে ‘ন্যাশনাল অ্যাকশন প্ল্যান ফর অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল রেসিস্টেন্স কনটেইনমেন্ট ২০১৭-২০২২’ গঠন করেছিলাম। এই নথি এবং তার সংশ্লিষ্ট ‘রোডম্যাপ’ আমাদের সরকারের নীতি থ্রাস্ট এবং এএমআর সম্বোধনের অঙ্গীকার সম্পর্কে কথা বলছে। এটা আমাদের দেশের সবার সার্বজনীন স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে আমাদের প্রচেষ্টার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এখন আমাদের বিশ্বব্যাপী সমন্বিত পদক্ষেপ প্রয়োজন সংক্রমণের প্রকৃতি পর্যবেক্ষণ করতে, প্রয়োজনীয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করতে এবং অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যাপক ব্যবহারের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী সচেতনতা বৃদ্ধি করতে। আমাদের উচিত নতুন অ্যান্টিবায়োটিকের সাশ্রয়ী মূল্যের প্রবেশ নিশ্চিত করা। এর জন্য নতুন প্রজন্মের অ্যান্টিবায়োটিক আবিষ্কারের জন্য আন্তর্জাতিকভাবে সমন্বিত বিনিয়োগের আহŸান জানান প্রধানমন্ত্রী।
শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম। বৈশ্বিকবিরোধী প্রতিরোধ সঙ্কট মোকাবিলায় ‘আন্তঃসংস্থা সমন্বয় গ্রæপ অন অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রতিরোধ’ এর সুপারিশ কার্যকর বাস্তবায়নের জন্য এ সময়োপযোগী উদ্যোগকে সফল করার জন্য বৈশ্বিক নেতাদের প্রতি আহŸান জানিয়ে তিনি বলেন, এই লিডারস গ্রæপ এ গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য সমস্যা মূলধারায় সফল হবে যা আমাদের সব গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনার মাধ্যমে অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধের অদম্য উন্নয়ন মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ বৈশ্বিক প্রচেষ্টায় অবদান রাখে ।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন