ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

এরদোগানের সাথে সউদী বাদশার ফোনালাপ, সম্পর্কোন্নয়নে ঐক্যমত্য

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৫৪ পিএম

সউদী আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান। তুরস্কে অবস্থিত সউদী দূতাবাসে সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডের পরে দুই নেতা এই প্রথম ফোনে কথা বললেন। মূলত সউদীতে শুরু হতে যাওয়া জি-২০ সম্মেলনকে কেন্দ্র করেই এরদোগানকে ফোন করেন বাদশা সালমান।

শনিবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট দপ্তর থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ও বাদশাহ সালমান দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়ন এবং বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে সংলাপের পথ খোলা রাখতে সম্মত হয়েছেন।’ বিবৃতিতে আরো বলা হয়, দুই নেতা জি-২০ নেতাদের সম্মেলনের বিষয় নিয়েও কথা বলেন। এবারের জি-২০ সম্মেলনের আয়োজক দেশ হচ্ছে সউদী আরব। শনিবার থেকে শুরু হওয়া এই সম্মেলন বাদশাহ সালমানের সভাপতিত্বে বিশ্বের ১৯টি বৃহৎ অর্থনীতির দেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এতে অংশগ্রহণ করেছে। এদিকে সউদীর রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, জি-২০টির কাঠামোর মধ্যে সমন্বিত প্রচেষ্টা গ্রহণের বিষয়ে এরদোগানের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন বাদশাহ সালমান।

তুরস্ক ও সউদী আরব দীর্ঘদিন ধরে মুসলিম বিশ্বে আধিপত্য বিস্তারের জন্য প্রতিযোগিতা করেছে। তবে ২০১৮ সালে ইস্তাম্বুলের সউদী কনস্যুলেটে ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডের পরে দুই সুন্নি-মুসলিম আঞ্চলিক শক্তির মধ্যে উত্তেজনা তীব্রতর হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ড আন্তর্জাতিকভাবে সমালোচিত হয় এবং এমবিএস হিসাবে পরিচিত ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের খ্যাতি ভাবমূর্তি সঙ্কটে পড়ে।

তুরস্কের কর্মকর্তাদের মতে, কনস্যুলেটের ভেতরে ১৫ সদস্যের সউদী স্কোয়াড খাশোগীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে এবং তার লাশ দেহ টুকরো টুকরো করে গুম করা হয়। সে সময় এরদোগান বলেছিলেন যে, খাশোগিকে হত্যার আদেশটি সউদী সরকারের ‘সর্বোচ্চ পর্যায়’ থেকে এসেছে। তবে তিনি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানকে কখনও সরাসরি দোষারোপ করেননি। এছাড়া গত এক বছর ধরে তুর্কি পণ্য আমদানিতে সউদী আরবে অঘোষিত বয়কট চলছে। এছাড়াও বিভিন্ন ইস্যুতে মতভিন্নতার কারণে সউদী আরব ও তুরস্কের মধ্যেকার সম্পর্ক কিছুটা শীতল হয়েছে। সূত্র: ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Jack Ali ২২ নভেম্বর, ২০২০, ৪:০৭ পিএম says : 0
How come muslim hate and fight each other???(Believers are like one body in their mutual love and mercy. When one part of a body is in bad health, the rest of the entire body joins it in restlessness and lack of sleep and is busy with its treatment. Likewise, Muslims should run to helping each other.) [Bukhari] Stern warning from Allah [SWT] regarding unity of Muslim Ummah: Surah 8:Al-Anfal: Ayat: 73.. And those who disbelieve are allies of one another, [and] if you [Muslims of the whole world collectively] do not do so [i.e: become allies, as on united block under one Khalifah] (a chief Muslim ruler for the whole Muslim world) to make victorious Allah’s religion of Islamic Monotheism), there will be Fitnah [war, battles, rape, adultery, fornication, murde,polytheism] and oppression on the earth, and a great mischief and corruption will spread every corner in the world.
Total Reply(0)
করিম ২৩ নভেম্বর, ২০২০, ৫:০০ পিএম says : 0
দুটি দেশ সহ সকল মুসলিম দেশকে আল্লাহ এক ও নেক হওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন