ঢাকা শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারি ২০২১, ০১ মাঘ ১৪২৭, ০১ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আসছে বাইডেনের মন্ত্রিসভা

হার মেনে নিতে ট্রাম্পকে অনুরোধ রিপাবলিকান মিত্রদের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শিগগিরই তার নতুন মন্ত্রিসভায় যাদেরকে নেওয়া হচ্ছে তাদের নাম ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের হবু চিফ অব স্টাফ রন ক্লাইন। রোববার এবিসি নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‘এ সপ্তাহে মঙ্গলবার আপনারা নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টের প্রথম মন্ত্রিসভার নিয়োগ দেখতে চলেছেন।” “তবে যদি আপনারা জানতে চান কোন কোন মন্ত্রণালয় থাকছে বা কারা ওইসব মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পচ্ছেন, তবে আপনাদের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের মুখেই মঙ্গলবার তা শোনার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।” প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনে পরাজয় মেনে না নিলেও বাইডেন যে দ্রুতই ক্ষমতার পালা বদলের পথে হাঁটছেন এ থেকেই তা স্পষ্ট। ইলেকটোরাল কলেজ ভোটে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পেছনে ফেলেছেন ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী জো বাইডেন। কিন্তু ট্রাম্প এখন পর্যন্ত পরাজয় স্বীকার করেননি। অপরদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের কাছে হারের ফল পাল্টে দেওয়ার চেষ্টা থেকে সরে এসে পরাজয় মেনে নিতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তারই ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী রিপাবলিকান। এদের মধ্যে নিউ জার্সির সাবেক গভর্নর ক্রিস ক্রিস্টি ভোটে কারচুপির অভিযোগ নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হওয়া প্রেসিডেন্টের আইনি দলকে ‘জাতীয় লজ্জা’ হিসেবে অ্যাখ্যাও দিয়েছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি। নভেম্বরের নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিতে ট্রাম্প অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছেন। ভোটে ব্যাপক জালিয়াতি হয়েছে বলে তিনি ও তার প্রচার শিবিরের লোকজন অভিযোগ করে এলেও এখন পর্যন্ত এ সংক্রান্ত কোনো প্রমাণ হাজির করতে পারেননি তারা। এখন পর্যন্ত বেশিরভাগ রিপাবলিকানকে ট্রাম্পের পক্ষ নিতে দেখা গেলেও অল্প কয়েকজন দলীয় অবস্থানের বিপরীতে দাঁড়িয়েই প্রেসিডেন্টকে হার মেনে নিতে অনুরোধ করেছেন। এ সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে বলেও ভাষ্য মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর। শনিবার ট্রাম্প পেনসিলভানিয়াতেও বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছেন। ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্যটিতে ডাকযোগে আসা লাখ লাখ ভোট বাতিলের দাবিতে তার প্রচার শিবিরের করা মামলা ফেডারেল আদালত খারিজ করে দিয়েছে। এর ফলে বাইডেনকে আনুষ্ঠানিকভাবে জয়ী ঘোষণা করতে পেনসিলভেইনিয়ার কর্মকর্তাদের আর কোনো বাধা থাকল না। ডেমোক্র্যাট এ প্রার্থী রাজ্যটিতে ট্রাম্পের চেয়ে ৮০ হাজারের বেশি ভোট পেয়েছেন। গণনাকৃত ভোটের হিসাবে বাইডেন মোট ৫৩৮টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের মধ্যে ৩০৬টি পেতে যাচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে, যা প্রেসিডেন্ট হতে প্রয়োজনীয় ২৭০ ভোটের চেয়ে অনেক বেশি। রোববার এবিসি’র ‘দিজ উইক’ অনুষ্ঠানে নিউ জার্সির সাবেক গভর্নর ক্রিস্টি বলেন, “সত্যিকার অর্থে প্রেসিডেন্টের আইনি দলের আচরণ জাতীয় বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। ট্রাম্প শিবির প্রায়ই আদালতের বাইরে নির্বাচনে জালিয়াতির বিষয়টি আলোচনা করছে; কিন্তু যখন তারা আদালত কক্ষে যাচ্ছে তখন তারা এ সংক্রান্ত যুক্তিতর্ক হাজির করতে পারছে না।” “আমি দীর্ঘদিন ধরেই প্রেসিডেন্টের সমর্থক। দু’বার তাকে ভোট দিয়েছি। নির্বাচনের ফলাফল হয়েছে এবং যেটা হয়নি সেটা হয়েছে মনে করে আমরা কর্মকান্ড চালিয়ে যেতে পারি না,” মত এ প্রভাবশালী রিপাবলিকানের। ২০১৬ সালে ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীতা সমর্থন করা প্রথম গভর্নর ছিলেন ক্রিস্টি। চলতি বছর বাইডেনের সঙ্গে বিতর্কে ট্রাম্পের প্রস্তুতিতেও সহায়তা করেছিলেন তিনি। রোববার রিপাবলিকান পার্টির আরও কয়েকজন ট্রাম্পকে হার মেনে নিতে অনুরোধ করেছেন। মেরিল্যান্ডের গভর্নর ল্যারি হোগান সিএনএনকে বলেছেন, নির্বাচনের ফল উল্টে দিতে ট্রাম্প শিবিরের ধারাবাহিক চেষ্টায় ‘মনে হওয়া শুরু হয়েছে যে আমরা একটি ব্যানানা রিপাবলিক’। এবিসি নিউজ, বিবিসি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন