সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বন্যাপ্রবণ ও নদীভাঙন এলাকায় কাজ করার সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

দেশে বন্যাপ্রবণ এবং নদীভাঙন প্রধান এলাকায় দ্রæত কাজ করার সুপারিশ করেছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি। এই সঙ্গে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে এ বিষয়ক চিঠি পাঠাতে বলা হয়।

গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি এ বি তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, কমিটির সদস্য ও প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান, মো. আফতাব উদ্দিন সরকার, মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এবং জুয়েল আরেং। বৈঠকে মুজিব জন্মশতবর্ষে গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিটা) কর্মসূচির আওতায় চালের পরিবর্তে নগদ টাকা বরাদ্দের পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য মন্ত্রণালয়কে ধন্যবাদ জানায় কমিটি। বৈঠকে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচিকে (সিপিপি) স্বাধীনতা পদক-২০২১ এর জন্য মনোনয়নের প্রস্তাব করেছে সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এই সরকারি প্রতিষ্ঠানটি দুর্যোগে সাড়া প্রদানে সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে ঘূর্ণিঝড়ে প্রাণহানি ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনায় অবদান রাখায় এ প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলেছে কমিটি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি) প্রতিষ্ঠানটি ১৯৭২ সাল থেকে মানুষের সেবা করে আসছে। তাদের অবদানে ঘূর্ণিঝড়ে মানুষের মৃত্যু ১০ লাখ থেকে সিঙ্গেল ডিজিটে আনা সম্ভব হয়েছে।এ প্রতিষ্ঠানটিকে স্বাধীনতা পুরষ্কার ২০২১ সালে মনোনয়নের জন্য প্রস্তাব করে কমিটি।

এছাড়া সামাজিক দুর্যোগ অর্থাৎ মাদকাসক্ত, নেশাগ্রস্ত, মাদক ব্যবসায়ী, সামাজিক অবক্ষয়, ইভটিজিং ইত্যাদি মোকাবিলা করার লক্ষ্যে গৃহীত কর্মসূচিতে মন্ত্রণালয়কে ওয়ার্কশপের আয়োজন করে অনুপ্রাণিত করা ও দক্ষ মানবসম্পদে রূপান্তরিত করার সুপারিশ করা হয়। সেই সঙ্গে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে এ কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্তি করার বিষয়ে বলা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন