ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

লোকাল বাস সঙ্কট

রাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে নুরুল আবছার চেীধুরী : | প্রকাশের সময় : ২৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

দীর্ঘ এক যুগ ধরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় অবস্থিত কাপ্তাই-চট্টগ্রাম মহাসড়কে লোকাল বাস সঙ্কট চলছে। এ সড়কে প্রতিদিন রাঙ্গুনিয়া উপজেলা হয়ে তিন পার্বত্য জেলার হাজার হাজার যাত্রী যাতায়াত করেন। লোকাল বাস সঙ্কটে সাধারণ যাত্রীদের দ্বিগুণ ভাড়া পরিশোধসহ নানা ভাবে হয়রানী ও চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। যাত্রী কম হওয়ার অজুহাত দেখিয়ে বাস মালিক পক্ষ প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে এই সড়কে লোকাল বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। ফলে কাপ্তাই-চট্টগ্রাম সড়কে স্বল্প ও কম আয়ের পেশাজীবীরাই বেশি বেকায়দায় পড়েছেন বলে জানা গেছে। বিশেষ করে স্কুল-কলেজ গামী ছাত্রছাত্রী এবং চট্টগ্রাম শহরে কর্মরত হাজার হাজার গার্মেন্টস কর্মী। রাঙ্গুনিয়া ও পাশ্ববর্তী উপজেলার থেকে শহরে একবার যাতায়াতে গুণতে হয় অতিরিক্ত ভাড়া।

বাস যাত্রী মোহাম্মদ করিম জানান, ১-৫ কিলোমিটার পথ যাতায়াতে লোকাল বাসের ভাড়ার তিনগুণ বেশি ভাড়া দিতে হয় সিএনজি বা অন্য গাড়িতে যেতে। লোকাল বাস চলাচল না করায় এক শ্রেণির সিএনজি চালিত অটোরিকশার ড্রাইভার দ্বিগুণ ভাড়া আদায় করছে।
মিটারে ভাড়া আদায়তো দূরের কথা, মিটারই নেই কোন গাড়িতে। অধিকাংশ চালকদের লাইসেন্স ও গাড়ির বৈধ কাগজপত্র না থাকার অভিযোগ উঠেছে। সূত্র জানায়, ১৯৬২ সালে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে বাসে যাত্রী পরিবহন শুরু হয়। লোকাল বাস লিচুবাগান থেকে চট্টগ্রাম শহরে যাতায়াত করে। যাত্রীদের কথা বিবেচনা করে ১৯৮৮ সালে কাপ্তাই সড়কে বিরতিহীন সার্ভিস চালু করা হয়। পাশাপাশি লোকাল বাস চলাচল অব্যাহত ছিল।
সিএনজি অটোরিকশা ও বিভিন্ন গ্যাসচালিত গাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়াতে লোকাল বাসের কদর কমতে থাকে। যাত্রী কম হওয়ার অভিযোগ এনে সড়কে লোকাল বাস চলাচল বন্ধ করা হয়। আর তখন থেকে মিটারহীন সিএনজি চালিত অটোরিকশায় ডাবল ভাড়া আর বিরতিহীন নামধারী বাসগুলোর অনিয়ম বাড়তে থাকে। আর সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ পৌঁছে চরমে। লোকাল বাসের ৫ টাকার ভাড়া সিএনজি অটোরিকশাতে ১৫-২০ টাকা দিতে হচ্ছে।
বাস চালকরা জানান, সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও ছোট যানচলায় লোকাল বাসে যাত্রী কম। মালিক পক্ষ লোকসান দিয়ে সড়কে বাস চালাতে চান না। বিরতিহীন বাসে লোকসান কম হয়। সময় বাঁচানোর জন্যে যাত্রীরা লোকাল বাসে উঠতে চান না। তাই লোকাল বাস তুলে নেয়া হয়েছে।
যাত্রীরা জানান, কাপ্তাই থেকে চট্টগ্রাম গামী বাসে অনিয়ম ও যাত্রী হয়রানি দিন দিন বেড়ে চলছে। ৪০ সিটের বাসে কখনো কখনো ৬০ জনের অধিক যাত্রীও উঠানো হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন