ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

গুইমারায় আলোচিত স্বামী হত্যায় দায়ে স্ত্রীসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

রামগড় (খাগড়াছড়ি) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ৫:০৬ পিএম

খাগড়াছড়ির গুইমারায় স্ত্রীর পরকিয়ার ভাড়াটিয়া দিয়ে রামগড়ের সৌদি ফেরত প্রবাসী স্বামী মমিনুল হক (৪০) হত্যার ঘটনায় স্ত্রী রাবেয়া বেগমসহ ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেছে আদালত।

বৃহঃবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে খাগড়াছড়ির জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো. আলমগীর হাসানের আদালত এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত অন্য আসামীরা হলেন, সাইফুল ইসলাম, ফিরোজ, আবুল কালাম ও আবুল আসাদ ওরফে মিঠু। দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে আবুল আসাদ ওরফে মিঠু ছাড়া সবাই কারাগারে রয়েছে।

খাগড়াছড়ির পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট বিধান কানুনগো জানান, ২০১৬ সালের ০৫ ফেব্রুয়ারি জেলার গুইমারা উপজেলার রবীন্দ্র কার্বারী পাড়ার জঙ্গল থেকে প্রবাসী মমিনুল হকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। স্ত্রী রাবেয়া বেগম পরকিয়ার জেরে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে ভাড়াটিয়া খুনি দিয়ে স্বামী মমিনুলকে হত্যা করে। একই বছরের ৯ সেপ্টেম্বর পুলিশ তদন্ত করে চার্জশিট দেয়। রাষ্ট্রপক্ষের ১২ জন সাক্ষী এ মামলায় সাক্ষ্য দেন।

মামলার বিবরনে জানা যায়, নিহত মোমিনুল হক রামগড় উপজেলার চৌধুরীপাড়ার বাসিন্দা ও সৌদি প্রবাসী ছিলেন। স্বামীর পাঠানো টাকায় ১লাখ টাকা চুক্তিতে ভাড়াটিয়া খুনি দিয়ে পরিকল্পিতভাবে স্বামীকে গুইমারা নিয়ে হত্যা করান। হত্যার তিনমাস পর হত্যাকান্ডের রহস্য উম্মোচন করে পুলিশ স্ত্রীসহ খুনিদের গুইমারা ও ফেনী থেকে আটক করে। স্বামীর অনুপস্থিতিতে দেবর একরামুল হকের সঙ্গে তার দৈহিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দেশে ফেরার পর স্বামী বিষয়টি জানতে পারলে। পরকীয়ার পথ পরিষ্কার করতে স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করে রাবেয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন